শিরোনাম :
লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, নিহত ২২ অভিবাসী রাশিয়া-ইরান-ভারতের নতুন করিডোর, চ্যালেঞ্জ ছুড়বে পশ্চিমাদের! পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদের জামিন নামঞ্জুর ভোটকেন্দ্র দখল ও গোপনে সিল মারার অপসংস্কৃতি টিকিয়ে রাখতেই ইভিএমে বিএনপির ভয় : তথ্যমন্ত্রী দাম কমলো স্বর্ণের মগবাজারে নিজ ফ্লাটে চিকিৎসকের অর্ধগলিত লাশ মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়ার খরচ নির্ধারণ বাংলাদেশে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭২৮ চীন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মিথ্যা তথ্য, বাংলাদেশকে সতর্ক করলেন লি জিমিং বন্যায় মৃত্যুর মিছিলে আরও তিনজন সহ, মোট ১১০ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩০০ কোটি টাকা বেলুচিস্তানে প্রবল বর্ষণে নিহত ২০ নির্বাচনী ব্যবস্থাকে আধুনিক করতে কাজ করছে সরকার: কাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কোনো পরিকল্পনা নেই: শিক্ষামন্ত্রী সেনা-কর্তাদের সমালোচনা করলেন জেলেনস্কি

১৬ বছরের ছাত্রকে বিয়ে করতে ১৫ বছরের ছাত্রীর বিষপান

  • মঙ্গলবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২১

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গায় দশম শ্রেণির এক ছাত্রকে বিয়ে করতে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে একই শ্রেণির এক ছাত্রী। তারা সদর উপজেলার আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জানান, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আলিয়ারপুর গ্রামের এক কৃষকের ছেলে ও পার্শ্ববর্তী দশমী গ্রামের এক দিনমজুরের মেয়ে স্থানীয় আলিয়ারপুর আজিজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের লেখাপড়া করে।

অষ্টম শ্রেণিতে থাকা অবস্থায় গত ২ বছর আগে তাদের মধ্যে প্রেম সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিছুদিন আগে তাদের সম্পর্কের অবনতি হয়। বেশ কয়েকদিন থেকে ছেলেটিকে ফোন করে মেয়েটি। কিন্তু কোন সাঁড়া না পেয়ে সোমবার বিকেল ৫টার দিকে এক বোতল বিষ নিয়ে ছেলেটির বাড়ির সামনে যায় মেয়েটি। সেখানে ছেলেটিকে ডেকে বাড়ির বাহিরে এনে তার সামনেই বিষপান করে মেয়েটি।

তিনি আরও জানান, তখনই ছেলেটি তার মাকে ডাক দেয়। মেয়েটিকে দ্রুত উদ্ধার করে দশমী গ্রামের বাজারে পল্লী চিকিৎসকের কাছে নেয় তারা। সেখানে মেয়েটির পাকস্থলী ওয়াশ করা হয়। রাতেই বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করে উভয় পক্ষ। আয়োজন করা হয় বিয়ের। এক পর্যায়ে সেখানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে ছেলে ও মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নেয় পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে থানায় উভয়পক্ষের লোকজনকে ডাকা হয়। তাদের বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়। বিডি২৪লাইভ কে ওসি জানান, প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়ে ও ছেলেটির বিয়ে দেবেন না বলে অঙ্গীকার করেন তাদের অভিভাবকরা। মেয়েটির বাবা দিনমজুর হওয়ায় তার লেখাপড়ার দায়িত্ব নেন ওসি।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved