শিরোনাম :
বাংলাদেশি ভিসায় যেসব বিধি-নিষেধ আরোপের কথা ভাবছে ইইউ অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের সব প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী র‌্যাবের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা রাজনৈতিক বিষয় : পররাষ্ট্রমন্ত্রী আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে কমিটি করা চলবে না: কাদের বেশিরভাগ কোম্পানির দর অপরিবর্তিত, কমেছে লেনদেন সুষ্ঠু নির্বাচন করতে ডি‌সিদের তৈ‌রি থাকার নির্দেশ দেশে ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি আরও ৮ ডেঙ্গু রোগী ১৩ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করল ইসরায়েল দেশে আরও ১৬ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু নেই প্রয়োজনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পরিবর্তন করা হবে : আইনমন্ত্রী ফের বাড়ল চিনির দাম রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৯৩ সব শিল্পাঞ্চল ফাইভ জি কানেক্টিভিটির আওতায় আসবে : প্রধানমন্ত্রী সাম্প্রদায়িক শক্তি যেনো মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে: প্রধান বিচারপতি মিশিগানে তীব্র তুষারপাত, বিপর্যস্ত জনজীবন

সোনালি বুটে খেলছেন মেসি, আছে যে বিশেষত্ব

  • সোমবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক : লিওনেল মেসি যখন মাঠে নামেন তখন অন্য কারো দিকে চোখ ফেরানো ভার। তার মাথার চুল থেকে পায়ের বুট— সবকিছুর দিকে নজর ফুটবলপ্রেমীদের। শনিবার মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের মনে আবারও আশার প্রদীপ জ্বালিয়েছেন মেসি। যেই পা দিয়ে রোমাঞ্চকর গোল দিয়েছেন এলএম ১০ তাতে মিলল সোনালি ঝিলিক।

গত ম্যাচে মেসির গোল ছাড়াও একটি বিষয় নজর কেড়েছে সবার। আর তা হলো তার পায়ে থাকা সোনালি বুটজোড়া। কেবল মেসির জন্যই বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে এটি। আর এই বুটজোড়ার বিশেষত্ব জানলে অবাক হবেন আপনি।

মেসির পা জড়ানো বুটজোড়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে অ্যাডিডাসের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে। সেখানে লেখা হয়েছে, আর্জেন্টিনার ‘পারফেক্ট ১০’ তার চূড়ান্ত জয়ের লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছেন, সে উপলক্ষে এই বিশেষ এক্স স্পিডপোর্টাল বুটগুলো লিওনেল মেসির এই উজ্জ্বল উত্তরাধিকারকে উদযাপন করবে। প্রাইমেকটিন স্বর্ণালি রঙে এবার তৈরি করা হয়েছে মেসির বুট।

বুটজোড়ার রয়েছে বেশ কিছু বিশেষত্ব। এর আনুষ্ঠানিক নাম দেওয়া হয়েছে, ‘অ্যাডিডাস এক্স মেসি ২০২২ ওয়ার্ল্ড কাপ স্পিডপোর্টাল বুটস।’ ডান পায়ের বুটে লেখা রয়েছে ‘থিয়াগো ০২ ১১ ১২ এবং মাতেয়ো ১১ ০৯ ১৫।’ এই নামগুলোর মেসির দুই ছেলের। তার বড় ছেলে থিয়াগোর জন্ম ২০১২ সালের ২ নভেম্বর। আর মেজো ছেলে মাতেয়োর জন্ম ২০১৫ সালের ১১ সেপ্টেম্বর। অর্থাৎ তাদের জন্মতারিখ খোঁদাই করা হয়েছে সেখানে।

বাঁ বুটে রয়েছে ‘সিরো ১০ ০৩ ১৮ এবং আন্তো’। মেসির কনিষ্ঠ পুত্র সিরোর নাম-জন্মতারিখ এটি। অন্যদিকে, মেসির স্ত্রী আন্তোনেল্লার নামের সংক্ষিপ্ত রূপ হলো আন্তো।

এখানেই শেষ নয়। দুটো বুটেই লেখা আছে ১০ সংখ্যাটি যা মেসির জার্সি নম্বর। এছাড়া রয়েছে আর্জেন্টিনার জাতীয় পতাকার নীল-সাদা স্ট্রাইপ। প্রস্তুতকারী সংস্থার লোগো ছাড়াও রয়েছে মেসির নিজস্ব ব্র্যান্ডের লোগো।

বুটজোড়াতে প্রযুক্তিগত বিশেষত্বও লক্ষ্যণীয়। সম্পূর্ণ সোনালি রঙের জুতোয় ব্যবহার করা হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। এতে রয়েছে বিশেষ ধরনের স্টাড, যা দ্রুত গতিতে দৌড়ানোর পথে কোনো সমস্যা সৃষ্টি করবে না। অর্থাৎ দ্রুতগতিতে দৌড়ালেও ঘাস বা মাটির সঙ্গে জুতো আটকে যাওয়ার কোনেও সম্ভাবনা নেই।

বল নিয়ন্ত্রণে হঠাৎ এক পাশ থেকে অন্য পাশে ঘুরতে গেলে শরীরের ভারসাম্য যেন ঠিক থাকে সেই কাজেও বিশেষ সাহায্য করবে এই বুটের স্টাডগুলো।

সব মিলিয়ে বলা যায় দারুণ সব বৈশিষ্ট্য রয়েছে মেসির বুটজোড়া। স্ত্রী আর সন্তানদের স্মরণে রেখেই এলএম ১০ পায়ের জাদু দেখাতে চান বিশ্বকাপের মাঠে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved