শিরোনাম :
পতন ঠেকাতে ক্ষমতাসীনরা জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়েছে : রিজভী সংকটেও তৈরি পোশাকসহ রপ্তানি আয়ে সুবাতাস ইসলামী ব্যাংকে ‘ভয়ংকর নভেম্বর’ : অনুসন্ধানের নির্দেশ যুদ্ধ নয়, আমরা শান্তিতে বিশ্বাসী : প্রধানমন্ত্রী টুকু-নয়ন গ্রেফতার: যুবদলের বিক্ষোভের ডাক পশ্চিমাদের বেঁধে দেওয়া তেলের দাম প্রত্যাখ্যান করলো রাশিয়া বুস্টার ডোজের আওতায় ৬ কোটি ৬ লাখের বেশি মানুষ সকাল থেকেই মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থলে যাচ্ছেন নেতাকর্মীরা বিমান পরিবহনে সুরক্ষায় চীন থেকেও এগিয়ে ভারত! উত্তপ্ত রাজনীতি, হঠাৎ থমথমে রাজধানী বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু নামল ৬শ’তে, শনাক্ত আরও ৩ লাখ তুলে নেওয়া নয়; যুবদল সভাপতিসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে: ডিবি প্রথম দল হিসেবে কোয়ার্টারে নেদার‌ল্যান্ডস আমিন বাজার থেকে যুবদল সভাপতি টুকু আটক সমাবেশ বানচাল করতেই নয়াপল্টনে ককটেল বিস্ফোরণ: রিজভী

সরকার সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপিকে দায়ী করছে: ফখরুল

  • রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১

ঢাকা : সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার যেসব ঘটনা ঘটেছে এর জন্য সরকারকে দায়ী করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে সরকার সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপিকে দায়ী করছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব।

রবিবার বিকালে সুনামগঞ্জে এক সমাবেশে ফখরুল এসব কথা বলেন। সাবেক সংসদ সদস্য, বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও সাবেক হুইপ ফজলুল হক আছপিয়ার শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সারাদেশে খুন-ধর্ষণ বেড়ে গেছে, দ্রব্যমূল্য বেড়েই চলেছে। আইনশৃঙ্খলার শুধু অবনতি হচ্ছে। কিন্তু তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না সরকার। দেশের সব ধর্মের মানুষকে নিরাপত্তা দেওয়া সরকারের দায়িত্ব, কিন্তু জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি, তাই নিরাপত্তা দিতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। আর এসব ব্যর্থতা থেকে দৃষ্টি সরাতে সরকার এই সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপি ওপর দায় চাপিয়ে দিতে চায়।’

ফখরুল বলেন, ‘কিন্তু কোনো প্রমাণ তো পাওয়া যায়নি, প্রমাণ পাওয়া গেল ছাত্রলীগের নেতারা জড়িত। জোর করে চাপিয়ে দিলে তো হবে না, প্রমাণ করতে হবে। এখন সারাদেশের মানুষ বুঝতে পেরেছে, এই সরকার সব অঘটনের জন্য দায়ী। এই অবৈধ সরকারের এখনই পদত্যাগ করা উচিত।’

সাবেক হুইপ ফজলুল হক আছপিয়া সম্পর্কে ফখরুল বলেন, ‘একজন নিষ্ঠাবান সৎ ও সাহসী নেতা ছিলেন আছপিয়া। দলের জন্য তার ত্যাগ স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আজ তার শোকসভায় এই জনসমাগম বুঝিয়ে দেয় সুনামগঞ্জের মানুষ কত ভালোবাসত তাকে, কত জনপ্রিয় ও সমর্থক আছে তার। এই শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে ঐক্যবদ্ধভাবে দলকে আরও শক্তিশালী করে ফ্যাসিবাদী এই সরকারের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জে কঠোর আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত হতে হবে।’

নির্বাচন প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘নির্বাচন নির্বাচন খেলা করেই গত দুটি টার্ম জোর করে ক্ষমতায় আছে এই সরকার। যখন নির্বাচনের সত্যিকার পরিবেশ তৈরি হবে, তখনই আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো।’

জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য কলিম উদ্দিন আহমদ মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরুলের পরিচালনার বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন এজেড এম জাহিদ হোসেন, ডা. সাখায়াত হোসেন জীবন, নাসির উদ্দিন, মিজানুর রহমান, নজির হোসেন, আবুল কালাম, মিজান চৌধুরী প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, জেলা কৃষক দলের আহ্বায়ক আনিসুল হক, জেলা বিএনপির সহসভাপতি নাদের আহমদ, আনসার উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল।

এর আগে দুপুরে জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved