শিরোনাম :
দ্রুত আন্দোলন গড়ে তোলার ব্যাপারে আশাবাদী ফখরুল সার্বজনীন পদ্মাসেতুতে ওঠার আগে অপপ্রচারকারীদের ক্ষমা চাওয়া উচিত : তথ্যমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সম্মত মিয়ানমার: ইউএনএইচসিআর বাংলাদেশের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম অ্যাসেসমেন্ট রিপোর্ট প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ ঢাবিতে সংঘর্ষে ছাত্রদলের দুজনসহ আটক ৩ আমদানির লাগাম টানতে ১৩৫ পণ্যে শুল্ক হাতিরঝিলকে ‘জনগণের সম্পত্তি’ ঘোষণা ভোট দিনেই হবে: সিইসি এবার পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ল শ্রীলঙ্কায় সূচকের পতনে লেনদেন শেষ মেট্রোরেল লাইন-৪ এর নতুন রুট: ঢাকা-চট্টগ্রাম রোড হয়ে নারায়ণগঞ্জ মিয়ানমার উপকূলে নৌকাডুবে ১৭ রোহিঙ্গা নিহত সম্রাটকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ ফেনসিডিল মাদক, ওষুধ নয়: আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় নাশকতা মামলায় হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার স্থায়ী জামিন

রাজধানী ছাড়া পাঞ্জশির সব জেলা দখলের দাবি তালেবানের

  • সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের পাঞ্জশির প্রদেশের সকল জেলার নিয়ন্ত্রণ এখন তালেবানের হাতে। তালেবানের পক্ষ থেকে রোববার এমন দাবিই করা হয়েছে। তারা আরো জানিয়েছে, এখন রাজধানী নিয়ন্ত্রণ লাভের লড়াই চলছে।

অবশ্য আহমদ মাসুদের নেতৃত্বাধীন প্রতিরোধ ফ্রন্ট তালেবানের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে বলেছে, তারা পারিয়ান জেলা পুনর্দখল করেছে।

তালেবান ও প্রতিরোধ ফ্রন্ট উভয়ই যুদ্ধে সুবিধাজনক অবস্থায় থাকার দাবি করেছে।

তালেবানের কালচারাল কমিশনের উপ-প্রধান আহমদুল্লাহ ওয়াসিক বলেন, রোববার তালেবান বাহিনী পাঞ্জশিরের সকল জেলা দখল করে নিয়েছে।

তিনি বলেন, ইসলামি আমিরাতের মুজাহিদিনরা সকল এলাকায় সক্রিয়ভাবে উপস্থিত। তাদের হাতেই পাঞ্জশিরের সকল জেলার নিয়ন্ত্রণ রয়েছে। তারা কেবল পাঞ্জশিরের কেন্দ্র বাজারাকে প্রতিরোধের মুখে পড়েছে।

তালেবান বাহিনী সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করা এক ভিডিওতে বলেছে, তারা প্রতিরোধ ফ্রন্টের ব্যবহার করা ভারী সরঞ্জামের নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছে।

তালেবান কমান্ডার সাখিদাদ মাজমার বলেন, আমরা শত্রুদের কাছ থেকে বেশ কয়েকটি কামান দখল করেছিল।

অন্যদিকে প্রতিরোধ ফ্রন্টের মুখপাত্র ফাহিমত দস্তি তালেবানের দাবি প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, তারা তালেবানের হাত থেকে পারিয়ান জেলা আবার দখল করেছে।

মাসুদের আলোচনার প্রস্তাব
এদিকে প্রতিরোধ ফ্রন্টের নেতা আহমদ মাসুদ বলেছেন, পাঞ্জশির সমস্যা সমাধানের জন্য ধর্মীয় নেতারা যে শান্তি আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন, তা তিনি মেনে নিচ্ছেন।

ন্যাশনাল রেসিস্ট্যান্স ফ্রন্ট অব আফগানিস্তানের (এনআরএফ) নেতা রোববার গ্রুপের ফেসবুকে এই ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, এনআরএফ নীতিগতভাবে বর্তমান সমস্যার সমাধানে সম্মত। এ কারণে তারা যুদ্ধ সমাপ্ত করে আলোচনা অব্যাহত রাখতে চায়।

তিনি বলেন, স্থায়ী শান্তির জন্য এনআরএফ এই শর্তে যুদ্ধ বন্ধ করতে প্রস্তুত যে তালেবানও হামলা বন্ধ করবে এবং পাঞ্জশিরে সামরিক চলাচল থামাবে।

তিনি বলেন, তারপর আলেমদের একটি বড় দল সমবেত হয়ে সমস্যাটির সমাধানে বসবে। এ ব্যাপারে তালেবানের প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved