শিরোনাম :
বিরোধী দলের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ বিএনপি: কাদের স্বাস্থ্য বিভাগে প্রশিক্ষিত জনবলের অভাব আছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী কুমিল্লার ঘটনায় অপরাধীর বিচার হবে : প্রধানমন্ত্রী দেশে পৌঁছেছে আরও ৫৫ লাখ টিকা রাজধানীতে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার ৫২ ৮ম শ্রেণি পাসে চাকরি করুন ডিফেন্স ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টে টরন্টোতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থী নিহত ২০২২ সালেও থাকবে করোনা মহামারি: ডব্লিউএইচও পীরগঞ্জে যেভাবে ছড়িয়েছে হামলার উসকানি বন্যা-ভূমিধসে ভারত ও নেপালে নিহত ১৩৩ আফগান নারী খেলোয়াড়ের শিরশ্ছেদ করলো তালেবান বিশ্বে সংক্রমণ বাড়ছে, একদিনে সাড়ে ৭ হাজার মৃত্যু মালয়েশিয়ায় ১৭২ বাংলাদেশি সহ ২১৩ অভিবাসী আটক গুজব ছড়ানোর অভিযোগে বদরুন্নেসা কলেজের শিক্ষিকা আটক বিশ্বে প্রথম মানবদেহে বসলো শূকরের কিডনি

যে দশটি কাজে প্রেমিকা হারাতে পারেন

  • বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট, ২০২১

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কোনো নারী যখন প্রেমে পড়েন তখন সম্পর্কটা ধরে রাখার চেষ্টার কোনো ত্রুটি থাকে না। কিন্তু সব কিছুরই যেহেতু সীমা আছে, তাই সহ্য ক্ষমতা নির্দিষ্ট সীমার বাইরে চলে গেলে সম্পর্ক ভেঙে ফেলতে বাধ্য হয়। পুরুষের কিছু অবহেলাই সম্পর্কের এমন পরিণতি এনে দেয়।

জেনে নিন তেমনই দশটি কাজ সম্পর্কে যেগুলোর কারণে সম্পর্ক ভেঙে ফেলে নারী:

সম্পর্কে ‘মশলা’ না রাখা: পুরুষ যদি সম্পর্কটাকে একঘেয়ে করে ফেলে তাহলে নারীরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। প্রতিদিন একই রেস্তোরাঁয় খাওয়া, একই জায়গায় ঘুরতে যাওয়া, প্রতিদিনের একই রকম রুটিনের বাইরে না যাওয়ার অভ্যাসের কারণে সম্পর্কে একঘেয়েমি চলে আসে। আর তখন সেই সম্পর্কের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন নারীরা।

আকাশচুম্বী প্রত্যাশার অভিযোগ:
একজন নারী যখন ব্রেকআপের কথা ভাবেন, তখন সঙ্গীর সঙ্গে কয়েকবার কথা বলে সব ঠিক করার চেষ্টা করেন। কিন্তু পুরুষ সঙ্গীটি যদি সম্পর্ক ঠিক করার চেষ্টা না করে উল্টো অবাস্তব প্রত্যাশার অভিযোগ তুলেন, তখন নারীরা সেই সম্পর্ক থেকে সরে যায়।

বন্ধুদের জন্য প্ল্যান ক্যানসেল করা:
কোনো প্রেমিক যদি তার প্রেমিকার জন্য বরাদ্দ করা সময়টা হুট করে বন্ধুদের দিয়ে দেয়, তাহলে সেই সম্পর্ক টিকে থাকার সম্ভাবনা খুবই কম। নারীরা এই বিষয়টি খুবই অপছন্দ করেন।

কোনো বিষয় লুকানোর প্রবণতা:
যদি পুরুষ সঙ্গীর মধ্যে কোনো কিছু লুকানোর প্রবণতা দেখা দেয় তাহলে নারীরা সেই সম্পর্কের প্রতি বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। সম্পর্কে গোপনীয়তা ঢুকে পড়লে নারীরা সেই সম্পর্কে ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত মনে করেন এবং সম্পর্ক ভেঙ্গে দেয়।

প্রয়োজনে পাশে না পাওয়া:
প্রেমিকার যখন খুব মন খারাপ কিংবা মন খুলে গল্প করতে মন চাইছে প্রেমিকের সঙ্গে, তখন প্রেমিক ব্যস্ত বন্ধুদের আড্ডায়। প্রয়োজনের কথা বললেও পাত্তাই দিচ্ছে না প্রেমিক। এমন অবস্থায় সেই সম্পর্ক রাখাটাকে অর্থহীন মনে করেন নারীরা।

শিশুসুলভ আচরণ:
যদি কোনো পুরুষ কখনোই ‘সিরিয়াস’ না থাকে, সব কিছুই হেসে উড়িয়ে দেয়, শিশুসুলভ আচরণ করে সবসময়, তাহলে নারীরা দায়িত্ব নিতে নিতে ক্লান্ত হয়ে যায়। এক সময়ে সেই সম্পর্কে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন এবং একজন ‘ম্যাচিউরড’ মানুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়াতে চায়।

মতামতের দাম না দেয়া:
পুরুষ যদি তার নারী সঙ্গীর মতামতকে কখনোই দাম না দেয়, তাহলে নারী নিজেকে গুরুত্বহীন মনে করেন। ফলে সম্পর্ক ভেঙে যায়।

ক্যারিয়ারকে বেশি প্রাধান্য দেয়া:
ক্যারিয়ার নিয়ে স্বপ্ন সবারই থাকে। কিন্তু সম্পর্কের ক্ষেত্রে সঙ্গীর চাইতে ক্যারিয়ারকে বেশি প্রাধান্য দিতে গেলে বিপদ। যত ব্যস্ততাই থাকুক সঙ্গীকে জানাতে হবে যে কাজের চাইতে তিনিই প্রিয়।

অন্য নারীর সঙ্গে তুলনা:
এই কাজ করেছেন তো মরেছেন। প্রেমিকার সঙ্গে সহকর্মী, প্রাক্তন প্রেমিকা কিংবা মা, কারোরই তুলনা করা যাবে না। নারীরা বিষয়টিকে অপমানজনক মনে করেন। ফলে সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

প্রশংসার অভাব:
সুস্থ সম্পর্কের জন্য প্রশংসা থাকা উচিত। সঙ্গী কী পরেছেন, তাকে কেমন দেখাচ্ছে, এসব বিষয়ে মনোযোগ না দিলে নারীরা মনে করেন তার প্রতি প্রেমিকের কোনো আগ্রহই নেই। ফলে নিজেকে অবহেলিত মনে করে সম্পর্ক থেকে দূরে সরে যান তারা।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved