শিরোনাম :
নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনে নৌকার মাঝি আইভী বাংলাদেশে করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৪৩ ফের কড়াকড়ি যুক্তরাষ্ট্রের ভ্রমণনীতিতে! দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আরও ৩২ জন কুয়েট বন্ধ ঘোষণা, বিকালের মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ যাত্রীরা ঠেলছেন বিমান, ভিডিও ভাইরাল সীমান্ত হত্যা বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ চায় লেবার পার্টি বিএনপির মশাল মিছিল দেখে জনমনে আতঙ্ক : তথ্যমন্ত্রী ঘুরতে চাঁদপুরে যাচ্ছিলেন ৬ বন্ধু, বাস কেড়ে নিল ৩ প্রাণ কারাগারে থেকেও খালেদা জিয়া গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করছেন: মির্জা ফখরুল ভোটযুদ্ধে আওয়ামী লীগ হিজড়ার সা‌থেও হে‌রে যায়: দুদু সপ্তাহের ব‍্যবধানে বেড়েছে চালের দাম মুন্সিগঞ্জে দগ্ধ ভাই–বোনের মৃত্যু সাগরে নিম্নচাপ : বন্দরে ১ নম্বর সংকেত বরের বউ ভাবি! রক্ষা পেলেন না কাজী

যে কারণে অন্য খাবারের সঙ্গে ফল খাবেন না

  • রবিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২১

লাইফস্টাইল ডেস্ক: ফল আমাদের খাবারে বৈচিত্র্য যোগ করে। স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য দিনে তিনবার শাক-সবজি খাওয়া যেমন দরকার, তেমনই খাবারের তালিকায় ফলমূল রাখাও সমান গুরুত্বপূর্ণ। দিনে দুইবার ফল খেলে তা আপনার শরীরকে ভালোভাবে কাজ করার জন্য পুষ্টি সরবরাহ করতে পারে। এটি আপনাকে হাইড্রেটেড রাখতে সাহায্য করে, অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ থেকে দূরে রাখে। যার ফলে আপনার ওজন কমানো সহজ হয়। কিন্তু ফল খাওয়ার এই উপকারিতা পেতে হলে আপনাকে সঠিক সময়ে এবং সঠিকভাবে খেতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিটি খাবার একটি নির্দিষ্ট উপায়ে এবং নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়া উচিত। দুগ্ধজাত খাবার, শাক-সবজি বা মাংস, ফলমূল সব একসঙ্গে মিলিয়ে খেলে তা আপনার শরীরের জন্য একাধিক উপায়ে ক্ষতিকারক হবে।

কেন অন্য কিছুর সঙ্গে ফল খাবেন না

অন্য যেকোনো খাবারের তুলনায় ফল দ্রুত ভেঙে যায়। এটিকে অন্য যেকোনো খাবারের সঙ্গে যোগ করলে শরীরে টক্সিন তৈরি হতে পারে, যা আমা নামে পরিচিত। কারণ খাবার জোড়া লাগালে হজম প্রক্রিয়া কমে যেতে পারে। ফলকে ততক্ষণ পেটে থাকতে হয় যতক্ষণ না ভারী খাবার হজম হয়, ফলে শরীরের পুষ্টি শোষণ করা কঠিন হয়ে পড়ে। পাচক রস এটিকে গাঁজন করতে শুরু করে, যা সাধারণত বিষাক্ত। এটি অসুস্থতার ঝুঁকি বাড়াতে পারে। দুধ এবং দইয়ের মতো দুগ্ধজাত খাবারের সঙ্গে ফল খেলে ব্রণ, সোরিয়াসিস এবং একজিমার মতো ত্বকের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ফল কখনোই রান্না করবেন না যে কারণে

ফল সাধারণত উজ্জ্বল রঙের হয়। ফলের উজ্জ্বল রং হজমশক্তির প্রতিনিধিত্ব করে। কাঁচা খাওয়া হলে, ফলগুলো হজমকে উদ্দীপিত করতে সাহায্য করে, আপনার হজমশক্তি বাড়ায় এবং পেটকে শক্তিশালী করে। রান্নার ফলে হজম এবং স্বাস্থ্যকর পুষ্টির ক্ষতি হয়। তাই রান্না করা ফল খেলে কোনো লাভ হবে না।

ফল খাওয়ার উপযুক্ত সময়

ফল খাওয়ার সঠিক সময় হলো সকালে খালি পেটে। এ সময় আপনার পাকস্থলী ফল থেকে সর্বাধিক পুষ্টি শোষণ করতে পারে। এছাড়াও, সাধারণ কার্বোহাইড্রেটগুলো সকালে এবং ওয়ার্কআউটের আগে ও পরে খাওয়া ভালো। চর্বি, প্রোটিন এবং কম কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট সূর্যাস্তের পরে খাওয়া ভালো।

দিনে কখন ফল খাবেন

হালকা নাস্তা হিসেবে ফল খেতে পারেন। দুটি মূল খাবারের মধ্যকার সময়ে নাস্তা হিসেবে ফল খেলে তা আপনাকে প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজ সরবরাহ করতে পারে। সকাল ১১টা বা বিকেল ৪টা হলো ফল খাওয়ার সেরা সময়। আপনি যদি আপনার সকাল এবং দুপুরের খাবার দেরিতে খান তবে সঙ্গে সঙ্গে ফল খাবেন না। অন্তত আধা ঘণ্টার মতো অপেক্ষা করুন।

সূর্যাস্তের আগে ফল খাবেন যে কারণে

সন্ধ্যার পর ফল খেলে তা আমাদের ঘুমের সময়সূচী এবং হজমপ্রক্রিয়াকে ব্যাহত করতে পারে। বিশেষজ্ঞরা তাই বিকাল ৪টার আগে বা সূর্যাস্তের আগে ফল খাওয়ার পরামর্শ দেয়। ফল হলো সাধারণ কার্বোহাইড্রেট যার অর্থ এগুলো দ্রুত ভেঙে ফেলা যায়। ফল খেলে তা তাত্ক্ষণিকভাবে রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ায় এবং তাত্ক্ষণিক শক্তি সরবরাহ করে। ঘুমের আগে আগে রক্তে শর্করার স্পাইক হলে তা আপনার ঘুমকে ব্যাহত করতে পারে। সূর্যাস্তের পরে আমাদের বিপাক প্রক্রিয়া ধীর হয়ে যায় এবং পাচনতন্ত্রের পক্ষে কার্বোহাইড্রেট হজম করা কঠিন হয়ে পড়ে। সুতরাং, সন্ধ্যার পর কার্বোহাইড্রেট গ্রহণ সীমিত করা ভালো।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved