শিরোনাম :
নিখোঁজের আগের ঘটনা জানালো শিমুর বোন ফাতেমা মনে রাখবেন, জনগণের টাকায় আমাদের সংসার চলে : রাষ্ট্রপতি অপ্রচলিত বাজারে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ২৪ শতাংশ নির্বাচন কমিশন আইন প্রণয়ন নিয়ে টিআইবির বিবৃতি সূচকের উত্থান-পতনে লেনদেন শেষ বাংলাদেশে করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৮৪০৭ এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা ভাবছি না : শিক্ষামন্ত্রী বিএনপি অবৈধ অর্থ ব্যয়ে লবিস্ট ফার্ম নিয়োগ করেছে : তথ্যমন্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করলেন স্বামী একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখল অস্ট্রেলিয়া ওমিক্রন ঠেকাতে সক্ষম নয় টিকার ৪র্থ ডোজও : গবেষণা দলীয় লোক‌ দিয়ে নির্বাচন ক‌মিশন গঠন আইন কর‌ছে সরকার: নজরুল ১ এপ্রিল মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষা সুদানে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ৭ ৮ মার্চ খালেদা জিয়ার অভিযোগ গঠনের শুনানি

যেসব ভুলে আবারও করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন!

  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২২

স্বাস্থ্য ডেস্ক : আবারও বাড়তে শুরু করেছে করোনা। নতুন রূপ ও নাম নিয়ে হচ্ছে উপস্থিত। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই আমরা জানি, এই ভাইরাস মোকাবিলায় সচেতন হওয়ার বিকল্প নেই। দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পরেও আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। এর বড় কারণ হলো মানুষের উদাসীনতা, ভুল অভ্যাস।

আপনার কিছু ভুল ধারণা বা অভ্যাস ফের এই রোগের কবলে ফেলতে পারে। জেনে নিন কী সেই ধারণা-

একবার আক্রান্ত হলে আর ভয় নেই:

অনেকেরই ধারণা হলো, একবার করেনায় আক্রান্ত হলে দ্বিতীয়বার আর আক্রান্ত হবেন না। কিন্তু চিকিৎসকেরা বলছেন, এটি ভুল ধারণা। কারণ একবার আক্রান্ত হওয়ার পর এন্টিবডি তৈরি হলেও তা একটা সময় পর কমতে শুরু করে। ফলে করোনাসহ যেকোনো ভাইরাসই দ্বিতীয়বার আক্রমণ করতে পারে। একবার আক্রান্ত হওয়ার ছয় মাস পরেই দ্বিতীয়বার আক্রান্ত হতে পারেন! তাই এই বিষয়ে নিজেকে সতর্ক রাখা জরুরি।

টিকা নেওয়া হলেই মাস্ক ছাড়া বের হওয়া যাবে:

টিকার দুটি ডোজ নেওয়া হয়ে গেছে বলে আপনি যখন-তখন বাইরে বের হচ্ছেন মাস্ক ছাড়াই? এর মানে হলো অসুখকে আপনি দাওয়াত দিয়ে নিয়ে আসছেন। টিকা নেওয়া হলেও সব রকম বিধি-নিষেধ মেনে বাইরে বের হবেন। টিকা নিলেও এই রোগে আপনি সংক্রমিত হতে পারেন। অনেকের ক্ষেত্রে ভাইরাসের ছোঁয়াচে ভাব বেশি লক্ষ করা যাচ্ছে।

শুধু মাস্ক ব্যবহারই যথেষ্ট:

শুধু মাস্ক পরেই নিজেকে নিরাপদ ভাবতে শুরু করেন অনেকে। তবে শুধু মাস্ক নয়, চশমা ও গ্লাভসও পরতে হবে। কারণ মরণঘাতি করোনা ছড়াতে পারে চোখ ও স্পর্শের মাধ্যমেও। যদি হাসপাতালে না যাওয়া লাগে, তবুও এই অসুখকে হালকাভাবে নেবেন না। কারণ এটি যেকোনো সময় বড় বিপদের কারণ হতে পারে। প্রতিদিন এই অসুখে মৃত্যুর খবরও কিন্তু কম নয়!

অযথা ওষুধ খাওয়ার অভ্যাস:

অনেকেই নিজে নিজে ডাক্তারি করেন, অর্থাৎ চিকিৎসকের পরামর্শ না নিয়েই ওষুধ খেতে থাকেন। সামান্য ব্যথা বা জ্বর হলেই খেয়ে নেন প্যারাসিটামল বা পেইনকিলার। এই অভ্যাস আপনাকে ঝুঁকির ভেতর ফেলতে পারেন। তাই করোনা হয়েছে কি না জানার জন্য টেস্ট করিয়ে এরপর ব্যবস্থাপত্র গ্রহণ করাই উত্তম।

আড্ডা- জমায়েত:

মানুষ আগের জীবনে ফিরতে শুরু করেছিল। এর ভেতরেই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে করোনাভাইরাস। বিপদ কিন্তু এখনও কাটেনি। তাই আপাতত আড্ডা- জমায়েত এড়িয়ে চলুন। কারণ যত মানুষের জমায়েত হবে, তত এই সংক্রমণ ছড়ানোর ভয় বেশি থাকবে। দীর্ঘদিন সুস্থ থাকার জন্য কিছুদিন নাহয় অতিথি-আড্ডা এড়িয়েই চললেন!

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved