শিরোনাম :
‘ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক কৌশলগত অংশীদারদের চেয়ে গভীরতর’ পানিতে ডুবে মামাতো-ফুফাতো ভাইয়ের মৃত্যু চীন-রাশিয়া সদয় হলে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেহিসেবি বোলিং-ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশের হার পায়রা সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ৫২ কোটি টাকা সাশ্রয় দেশে ডেঙ্গুতে একজনের প্রাণহানি, আরও শনাক্ত ১৭৯ সরকার সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপিকে দায়ী করছে: ফখরুল বাংলাদেশে করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৫ ‘বাংলাদেশে চীনের উপস্থিতি ভারতের স্বার্থের সঙ্গে সাংঘর্ষিক’ শতভাগ মানুষ টিকা না পাওয়া পর্যন্ত মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি আওয়ামী লীগ ৭৫- এ বাকশাল করে গণতন্ত্র হত্যা করেছে : মোশাররফ সাম্প্রদায়িক হামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ প্রকাশ ফের পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পাবে জম্মু-কাশ্মির: অমিত শাহ দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করলে একটি গোষ্ঠীর কদর বাড়ে : প্রধানমন্ত্রী আজ আন্তর্জাতিক ডলফিন দিবস

যেমন হবে ডায়াবেটিস রোগীর খাবার

  • শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

স্বাস্থ্য ডেস্ক : ডায়াবেটিস রোগীদের শরীরের পুষ্টির জন্য প্রায় সব ধরনের খাবারেরই প্রয়োজন। কিন্তু কোনও খাবারই মাত্রাতিরিক্ত খাওয়া ভালো নয়। বিশেষ করে রোগ হলে খাবার মেপে খেতে হয়। সঙ্গে নিয়মিত খেতে হয় ওষুধও।

অনেকেই মনে করেন যে শুধু শাক সবজি খেলেই ব্লাড সুগারের মাত্রা ঠিক থাকবে। তা কিন্তু ঠিক নয়, যে কোনও খাবারই খেতে হবে পরিমিত। চলুন সে বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক।

গাজর : বেশিরভাগ মানুষেরই বিশ্বাস ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য গাজর ভালো না। কিন্তু সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের মতে ব্রোকলি কিংবা লেটুসের মতো গাজরও অনায়াসে খেতে পারেন ডায়াবেটিস রোগীরা। এতে ব্লাড সুগারের মাত্রার কোনও পরিবর্তন নয় না।

রাঙা আলু : ডায়াবেটিস হলেই আলু খাওয়া একবারে বন্ধ। বেশিরভাগ মানুষের মধ্যে এ ধারণা রয়েছে। কিন্তু এটি পুরোপুরি ঠিক না। ব্লাড সুগারে রাঙা আলু বা মিষ্টি আলু খাওয়া যায়। এই আলুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার যা ডায়াবেটিস রোগীদের পথ্যের কাজ করে। মার্কিন বিশেষজ্ঞদের মতে রাঙা আলু নির্দিষ্ট পরিমাণে খেলে ব্লাড সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রিত হয়। সিদ্ধ রাঙা আলু খাওয়ার পক্ষে বলেছেন সিডনি বিশ্ব বিদ্যালয়ের গবেষকরাও। তবে অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমাণের চেয়ে বেশি খাওয়া যাবে না।

দানাশস্য : ডায়াবেটিস হলে কার্বোহাইড্রেট এড়িয়ে যাওয়ার জন্য বেশিরভাগ মানুষই দানাশস্য খাওয়া বন্ধ করে দেন। এটিও ভুল ধারণা। বরং সকালে ব্রেকফাস্টে ওটস্, মুসলি, কর্নফ্লেক্স খেলে স্বাস্থ্য ভালো থাকে। সাদা চালের ভাতের বদলে ব্রাউন রাইস খাওয়া যায়।

বার্লি : বার্লিও এক ধরনের দানাশস্য। এতে কার্বোহাইড্রেট যেমন আছে তেমনই এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। এই ফাইবার ব্লাড সুগারের মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

মুসুর ডাল : মুসুরডালও দানাশস্য কিন্তু এটি অত্যন্ত পুষ্টিকর এবং প্রোটিনে ভরপুর। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের নিয়মিত মুসুর ডাল খাওয়া উচিত।

স্ট্রবেরি : অনেকে ভাবেন স্ট্রবেরিতে প্রচুর শর্করা জাতীয় পদার্থ রয়েছে। তাই ডায়াবেটিস রোগীদের এটি খাওয়া উচিত নয়। কিন্তু গবেষকরা বলছেন, স্ট্রবেরিতে অন্যান্য ফলের তুলনায় চিনির পরিমাণ অনেক কম থাকে। তার চেয়ে আপেল বা কমলালেবু অনেক বেশি ক্ষতিকারক।

দই : দই খেলে শরীরের সুগারের মাত্রা বেড়ে যায় বিষয়টি এমন না। দই শরীরের জন্য অনেক ভালো। তবে সেক্ষত্রে দোকানের পরিবর্তে বাড়িতে চিনি ছাড়া টক দই বসাতে হবে বা বাজারের কেনা টক দইও খাওয়া যেতে পারে।

সূত্র: হেলথ শটস

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved