শিরোনাম :
বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু বেড়েছে, শনাক্ত সাড়ে ৭ লাখ পাঁচ দিনে এলো ৫ হাজার কোটি টাকা রেমিট্যান্স লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবি, নিহত ২২ অভিবাসী রাশিয়া-ইরান-ভারতের নতুন করিডোর, চ্যালেঞ্জ ছুড়বে পশ্চিমাদের! পদ্মা সেতুর নাট খোলা বায়েজিদের জামিন নামঞ্জুর ভোটকেন্দ্র দখল ও গোপনে সিল মারার অপসংস্কৃতি টিকিয়ে রাখতেই ইভিএমে বিএনপির ভয় : তথ্যমন্ত্রী দাম কমলো স্বর্ণের মগবাজারে নিজ ফ্লাটে চিকিৎসকের অর্ধগলিত লাশ মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়ার খরচ নির্ধারণ বাংলাদেশে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭২৮ চীন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মিথ্যা তথ্য, বাংলাদেশকে সতর্ক করলেন লি জিমিং বন্যায় মৃত্যুর মিছিলে আরও তিনজন সহ, মোট ১১০ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩০০ কোটি টাকা বেলুচিস্তানে প্রবল বর্ষণে নিহত ২০ নির্বাচনী ব্যবস্থাকে আধুনিক করতে কাজ করছে সরকার: কাদের

মেঘনায় ১৮ দিনে ২১৯ অভিযান

  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২১

লক্ষ্মীপুর: মা ইলিশ রক্ষায় লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে গত ১৮ দিনে ২১৯ টি অভিযান চালিয়েছে জেলা মৎস্য বিভাগ। অভিযানে ১৩ জন জেলেকে আটক করা হয়েছে।
জাল জব্দ করা হয়েছে তিন লাখ ৯ হাজার সাতশ মিটার। আর ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়েছে এক হাজার ২০ কেজি। এ পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে ২৪ টি এবং মামলা হয়েছে ১৫ টি।

জেলা মৎস্য জরিপ কর্মকর্তা মো. কাইয়ুম তালুকদার গত ৪ অক্টোবর থেকে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত পরিচালিত অভিযানের তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আটক ১৩ জেলেকে ৩৩ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। জব্দকৃত ইলিশ মাছগুলো বিভিন্ন এতিম খানায় বিতরণ করা হয় এবং মাছ শিকারের জালগুলো পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

জেলা মৎস্য অফিস সূত্র জানায়, ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মা ইলিশ রক্ষার্থে লক্ষ্মীপুরের মেঘনা নদীতে গত ৪ অক্টোবর থেকে আগামী ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত ২১ দিন সকল প্রকার মাছ শিকার নিষিদ্ধ করে মৎস্য বিভাগ। নিষিদ্ধ

সময়ে ইলিশ মাছ ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, মজুদ আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এ জন্য নদীর পাশাপাশি উপকূলীয় মাছঘাট এবং হাটবাজারে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে জেলা মৎস্য অধিদফতর।

জেলা এবং উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ, নৌ-পুলিশ, কোস্টগার্ডসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে ট্রাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। তাদের সমন্বয়ে নদীতে নিয়মিত অভিযান চালানো হয়।

নদীতে মাছ শিকার থেকে বিরত রাখতে জেলার তালিকাভুক্ত ৩৮ হাজার ৭৩৬ জন জেলেকে ভিজিএফ এর আতওায় ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হচ্ছে। জেলাতে প্রায় ৫৪ হাজারের বেশি জেলে রয়েছে। তাদের মধ্যে নিবন্ধিত জেলের সংখ্যা ৪৯ হাজার ৯৩৩ জন।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, কোনো জেলে যেন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার করতে না পারে, সেজন্য নদীতে আমরা নিয়মিত অভিযান চালাচ্ছি। অভিযান সফল হলে নদীতে ইলিশ মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved