শিরোনাম :
কেবিন ক্রুদের অন্তর্বাস পরা বাধ্যতামূলক করল পাকিস্তান টানা বন্ধে পুরোনো রূপে সদরঘাট রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত হলো ইউক্রেনের চার অঞ্চল, পুতিনের ঘোষণা ইউক্রেনে বেসামরিক গাড়িবহরে রাশিয়ার হামলা, নিহত অন্তত ২৩ ৩ দিনের মধ্যে সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে, বাড়বে বৃষ্টি বিএনপির পাকিস্তানই ভালো ছিল বক্তব্য এবং রডের মাথায় জাতীয় পতাকা একই সূত্রে গাঁথা : তথ্যমন্ত্রী প্রতিমাসে দেশে ধর্ষণের শিকার ৭১ শিশু বাংলাদেশে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৭০৮ বিবিসির ১০ ভাষার রেডিও সম্প্রচার বন্ধ হচ্ছে কাবুলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ১৯ বিশ্বকাপের প্রাইজমানি ঘোষণা, চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ১৬ কোটি টাকা মন্দির-মণ্ডপ পাহারায় নেতাকর্মীদের থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের সুষ্ঠু নির্বাচন যেন না হয় সেজন্য উঠে পড়ে লেগেছে আ. লীগ: রিজভী ছেলেকে প্রকাশ্যে আনলেন বুবলী চার মাসের সাজা এড়াতে সাড়ে ৫ বছর পলাতক, অবশেষে ধরা

বিশ্বে করোনা সংক্রমণে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র, প্রাণহানিতে রাশিয়া

  • রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় ৬ হাজার মানুষ। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৭৯ হাজার।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। অন্যদিকে দৈনিক মৃত্যুতে সবার ওপরে রয়েছে রাশিয়া। এরপরই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৩ কোটি ২২ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪৭ লাখ ৫৬ হাজার।

রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫ হাজার ৯৩৩ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে প্রায় আড়াই হাজার। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৪৭ লাখ ৫৬ হাজার ৫২৪ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৭৯ হাজার ৭২৯ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ১ লাখ ১৮ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৩ কোটি ২২ লাখ ৪৮ হাজার ৩৯৯ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ হাজার ১১৪ জন এবং মারা গেছেন ৭৬৫ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৪ কোটি ৩৭ লাখ ২৫ হাজার ৬০৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৭ লাখ ৬ হাজার ৫৮ জন মারা গেছেন।

দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ৮২২ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২২ হাজার ৪১ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭৩ লাখ ৯৮ হাজার ৪১৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৩ হাজার ৯৫ জনের।

গত ২৪ ঘণ্টায় মেক্সিকোতে মারা গেছেন ৫৬৪ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১০ হাজার ১৩৯ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩৬ লাখ ১৯ হাজার ১১৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৪ হাজার ৭০৩ জনের।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৪৮ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৫ হাজার ৬৮৮ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ১৩ লাখ ৪৩ হাজার ৩০৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৯৪ হাজার ২৪৬ জনের।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৫৮ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ হাজার ১৪৯ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৩৬ লাখ ৫১ হাজার ২২১ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৪৬ হাজার ৯৪৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ ইন্দোনেশিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১২৩ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ১৩৭ জন। অন্যদিকে একই সময়ের মধ্যে ইরানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৯০ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৮৪৩ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে ‘বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved