শিরোনাম :
কুসিক নির্বাচনে আত্মসমর্পণ করেছে ইসি: সুজন রাজধানীতে গ্যাস লিকেজ থেকে আগুন, মা-ছেলে দগ্ধ ভারতীয় বিমানের করাচিতে জরুরি অবতরণ বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনে সরকারের কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান নয়: ফখরুল অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার : প্রধানমন্ত্রী আফগানিস্তানে ত্রাণ পাঠিয়েছে সরকার বন্দুক সহিংসতার ‘মহামারি’ অবসানে লড়াই চলবে : বাইডেন শেখ হাসিনার উন্নয়নের হাতির ভেতরের যে দাঁত নেই, সেটি এখন স্পষ্ট : রিজভী প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৪৭, খাসি ১৮ টাকা নির্ধারণ বিএনপি কর্মীরা রাস্তার ভাষায় কথা বলে : কাদের সিলেটে বন্যায় কৃষিতে ক্ষতি ৯০০ কোটি টাকা ঈদযাত্রার প্রথম দিনেই ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘র‌্যাগ ডে’ উদযাপন বন্ধের নির্দেশ মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধে কে জিতছে? বিশ্বজুড়ে করোনায় একদিনে মৃত্যুতে শীর্ষে ফ্রান্স, সংক্রমণে ইতালি

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান গাদ্দাফিপুত্র

  • সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : লিবিয়ার প্রয়াত শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাইফ আল-ইসলাম আল-গাদ্দাফি এবারে দেশটির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

রবিবার মনোনয়নপত্র জমা দেন তিনি। গাদ্দাফির শাসন আমলের পর থেকে দেশটিতে যে অস্থিরতা চলছে, আসছে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে তা বন্ধ হবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা গেছে, সাইফ আল-ইসলাম লিবিয়ার ঐতিহ্যবাহী পোশাকে নির্বাচন কার্যালয়ে উপস্থিত হন এবং মনোনয়নপত্রে সই করেন।

একজন নির্বাচন কর্মকর্তা জানিয়েছেন তিনি প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে নিবন্ধিত হয়েছেন।

সাইফ আল-ইসলাম লিবিয়ার পরিচিত ব্যক্তিদের একজন। তার পাশাপাশি প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াইয়ের তালিকায় থাকছেন লিবিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় সামরিক বাহিনীর কমান্ডার খলিফা হাফতার, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আবদুলহামিদ আল দিবাহ, পার্লামেন্টের স্পিকার আজুলা সালেহ।

আগামী ২৪ ডিসেম্বর দেশটিতে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে। তবে বিভিন্ন কারণে তা নির্ধারিত সময়ে হবে কি না, এ নিয়ে এখনো সন্দেহ রয়েছে।

গেল শুক্রবার প্যারিসে এক সম্মেলনে বিশ্বনেতারা একমত হয়েছেন যে যারা লিবিয়ার ভোটকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করবে, তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে।

২০১১ সালে গণঅভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে লিবিয়ায় গাদ্দাফির সরকারের পতন হয়। সে সময় বিদ্রোহীদের হাতে আটক হন গাদ্দাফি। পরে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এর পর থেকে রাজনৈতিক অস্থিরতা চলছে দেশটিতে।
খবর রয়টার্স

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved