শিরোনাম :
ন্যাটোতে যোগ দিতে চুক্তি স্বাক্ষর করল ফিনল্যান্ড-সুইডেন রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ৫ সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার সাথে প্রয়োজন দায়িত্বশীলতা : তথ্যমন্ত্রী মার্সেল টেলিভিশনে ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত মূল্যছাড় ব্যবসায়ীর গায়ে আগুন: স্ত্রীসহ গ্রেফতার হেনোলাক্সের মালিক কোথায় কখন লোড শেডিং, সময় বেঁধে দেওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ঈদের দিন সারা দেশে বৃষ্টির আভাস ঈদের ছুটিতে ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ ওমিক্রনের দুই সাব ভ্যারিয়েন্টের কারণে দেশে করোনার নতুন ঢেউ বাংলাদেশে করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮ কুসিক নির্বাচনে আত্মসমর্পণ করেছে ইসি: সুজন রাজধানীতে গ্যাস লিকেজ থেকে আগুন, মা-ছেলে দগ্ধ ভারতীয় বিমানের করাচিতে জরুরি অবতরণ বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনে সরকারের কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান নয়: ফখরুল অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার : প্রধানমন্ত্রী

নিজ দেশেই শরণার্থী বহু আফগান নাগরিক

  • সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১

ঢাকা : ২০ বছরের আফগানযুদ্ধে সহায় সম্বল হারিয়েছেন বহু আফগান নাগরিক। এক সময় যাদের সব ছিল এখন তাদের ঠাঁই হয়েছে নিজ দেশের অস্থায়ী ক্যাম্পে। তাঁবুতে মানবেতন জীবনে নিত্যসঙ্গী ক্ষুধা আর দারিদ্র্য।

নিজ দেশেই শরণার্থী বহু আফগান নাগরিক। কাবুলের পার্কে তাবু টাঙিয়ে বানানো হয়েছে অস্থায়ী ক্যাম্প। যুদ্ধে ঘর হারিয়ে অনেকেই ঠাঁই নিয়েছেন এ ক্যাম্পে। প্রায় ৪ হাজার মানুষের ঠিকানা হয়েছে উন্মুক্ত এই পার্কে।

প্রায় দেড় হাজার তাঁবুতে কোনো রকমে মানবেতর দিন পার করছেন গৃহহীন এই আফগানরা। প্রচণ্ড শীতে কাটাতে হচ্ছে নির্ঘুম রাত।

পার্কে আশ্রয় নেয়া এক বৃদ্ধা বলেন, চার মাস ধরে পরিবারের কাউকে দেখি নি। ঠিক মতো খেতে পারছি না। ঘুমও হয়নি। স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাই আমি।

সবচেয়ে নাজুক অবস্থায় শিশুরা। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ আর খাবারের সংকটে অসুস্থ হয়ে পড়ছে অনেক শিশুরা।

এই শিশুদের অনেকেই আফগান যুদ্ধে হারিয়েছে বাবা-মা, প্রিয়জন। সামনে অনিশ্চিত ভবিষ্যত, নিত্যসঙ্গী ক্ষুধা আর দারিদ্র্য। তার পরও মুছে যায়নি নিষ্পাপ হাসি।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved