শিরোনাম :
শেখ হাসিনার হাত ধরেই উন্নত দেশ গড়ব : মেয়র তাপস মুষ্টিমেয় রাজনৈতিক লোক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় : আমু ২৪ ঘণ্টায় ৫০৬ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি নার্স-সিন্ডিকেট চক্র পাচার করছে লাখ লাখ টাকার ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থায় ফিরে যাওয়ার সুযোগ নেই: আইনমন্ত্রী আন্দোলনের ঘোষণায় ১৩ বছর, মানুষ বাঁচে কয় বছর: বিএনপিকে কাদের ৫ বছর রোহিঙ্গাদের লালন না করতে হলে দেশ আরও উন্নত হতো ইরানে বিক্ষোভ: হিজাব বিতর্কের আড়ালে কী? আজ কোনো অভিযোগ নাই, অনুযোগ নাই : বিদায় আইজিপি বিজিবিকে অত্যাধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে পিরোজপুরে জাপা নেতাকে কুপিয়ে পা বিচ্ছিন্ন বিএনপির দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে হবে: শামীম সু চি’র আরও তিন বছরের কারাদণ্ড অস্থিতিশীল রাজনৈতিক পরিবেশ সুষ্ঠু নির্বাচনে বাধা: পিটার হাস ফ্লোরিডায় আঘাত হেনেছে ‘ইয়ান’, ব্যাপক ক্ষতির শঙ্কা

নিউজিল্যান্ডে বাধ্যতামূলক করোনা ভ্যাকসিনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

  • মঙ্গলবার, ৯ নভেম্বর, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডে করোনা টিকা বাধ্যতামূলক করার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করেছেন দেশটির হাজারও মানুষ। দেশটির পার্লামেন্টের সামনে আয়োজিত এই বিক্ষোভে টিকার বিরোধিতা ছাড়াও লকডাউন ও করোনা বিধিনিষেধের বিরুদ্ধেও স্লোগান দিচ্ছেন তারা।

এ পরিস্থিতিতে পার্লামেন্টের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে দেশটি।

বিবিসি প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বিক্ষোভের কারণে মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের পার্লামেন্ট ভবনের দুটি গেট ছাড়া সব দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিক্ষোভকারীদের বেশিরভাগই মাস্ক পরিহিত নয় এবং ওয়েলিংটনের কেন্দ্রস্থল থেকে শান্তিপূর্ণভাবে মিছিলের মাধ্যমে পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে অবস্থান নেন।

এদিকে টিকাবিরোধী বিক্ষোভের কারণে পার্লামেন্ট ভবনের চারপাশে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষ। নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেখানে বহুসংখ্যক পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

বিক্ষোভে বিভিন্ন প্রতীক ও বার্তা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড বহন করছেন অনেকে। প্ল্যাকার্ডে লেখা এসব বার্তার মধ্যে রয়েছে ‘স্বাধীনতা’ এবং ‘কিউইরা গবেষণাগারের ইদুর নয়’। এ ছাড়া টিকা বাধ্যতামূলক করার ব্যাপারে সরকারি আদেশ প্রত্যাহার এবং করোনা বিধিনিষেধ উঠিয়ে নিতেও স্লোগান দিচ্ছেন বিক্ষোভকারীরা।

এর আগে বার বার তাগাদা দেওয়া সত্ত্বেও যেসব স্বাস্থ্যকর্মী ও শিক্ষক-শিক্ষিকা করোনা টিকার ডোজ নেওয়া থেকে বিরত থাকছেন, তাদের জন্য ‘টিকা না নিলে চাকরি নেই’ নীতি নেয় নিউজিল্যান্ডের সরকার। সেই অনুযায়ী, গত অক্টোবর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে নিউজিল্যান্ড সরকারের করোনা প্রতিরোধ মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা মন্ত্রণালয় যুগপৎভাবে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে।

সেই বিবৃতিতে বলা হয়, আগামী ১ ডিসেম্বরের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের যেসব ডাক্তার ও নার্স করোনা টিকার দুই ডোজ নিতে ব্যর্থ হবেন, পরের দিন ২ ডিসেম্বর থেকে তাদের চাকরি থাকবে না।

অবশ্য চলতি বছর করোনার অতিসংক্রামক ধরন ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কার্যত সংগ্রাম করছে নিউজিল্যান্ডের জেসিন্ডা আরডার্ন সরকার। ফলে করোনা বিধিনিষেধ ও লকডাউন তুলে নিতে টিকাদানের গতিতে মনোযোগ দেয় দেশটি।

এ ছাড়া দেশের ৯০ শতাংশ মানুষ পুরোপুরি টিকার আওতায় চলে আসলে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সকল বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন জেসিন্ডা আরডার্ন। তবে বিক্ষোভকারীরা টিকা নেওয়া ছাড়াই করোনা বিধিনিষেধ উঠিয়ে নেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় নিউজিল্যান্ডে করোনায় সংক্রমণ ও প্রাণহানির সংখ্যা অনেক কম। করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ হাজারের কম মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মোট ৩২ জন মারা গেছেন।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved