শিরোনাম :
ফের বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাচ্ছে রামপাল চিলিতে দাবানলে পুড়ল ১৪ হাজার হেক্টর বনভূমি, অন্তত ১৩ জনের মৃত্যু এক সপ্তাহের মধ্যে ঢাকায় আসবেন দুই মার্কিন প্রতিনিধি জ্বালানির দাম আরও বৃদ্ধি চায় আইএমএফ খেলাপি ঋণ: সরকারিতে ১০, বেসরকারি ব্যাংকে ৫ শতাংশে নামানোর প্রতিশ্রুতি ইউক্রেনকে দূরপাল্লার বোমা ‘জিএলএসডিবি’ দেবে যুক্তরাষ্ট্র টেকনাফে বিজিবির অভিযানে ২ লক্ষাধিক ইয়াবা জব্দ মার্কিন আকাশে চীনা নজরদারির বেলুন ‘অগ্রহণযোগ্য’ ৪০টি দেশ বয়কট করতে পারে অলিম্পিক আজ ৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় ‘পথ ভুলে’ যুক্তরাষ্ট্রে গেছে সেই ‘গোয়েন্দা’ বেলুন, দাবি চীনের তালিবানি শিক্ষানীতির প্রতিবাদ জানানো সেই শিক্ষককে প্রকাশ্যে মারধর বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত প্রায় ২ লাখ, মৃত্যু ১ হাজার ৩শ’র ওপর ভাষার জন্য প্রাণ দেওয়া বিশ্বে অনন্য উদাহরণ : সেনাপ্রধান দেশে আরও ১০ জনের করোনা শনাক্ত, নেই মৃত্যু

নতুন কর্মসূচি দিয়ে সড়ক ছাড়লেন শিক্ষার্থীরা

  • শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১

ঢাকা : সারা দেশে শিক্ষার্থীদের হাফপাস কার্যকর ও নিরাপদ সড়ক দাবিতে এবং রাস্তায় চলমান অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে লালকার্ড প্রদর্শন শেষে ফের নতুন কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। নতুন কর্মসূচি অনুযায়ী তারা আগামীকাল (৪ ডিসেম্বর) সড়ক অব্যবস্থাপনার সঙ্গে জড়িতদের ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে মানববন্ধন করবেন।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে লালকার্ড প্রদর্শনী কর্মসূচি শেষে এ নতুন কর্মসূচির ঘোষণা দেওয়া হয়।

এ সময় খিলগাঁও মডেল কলেজের শিক্ষার্থী সোহাগী সামিয়া বলেন, আজকের মতো আমাদের কর্মসূচি এখানেই শেষ। আমরা আবার আগামীকাল দুপুর ১২টায় রামপুরা ব্রিজের ওপর মানববন্ধন করব।

তিনি আরও বলেন, কাল আমরা সড়কের অনিয়মের সঙ্গে যারা সংশ্লিষ্ট, তাদের প্রতিবেদন চিত্র প্রদর্শন করব। এছাড়া আমাদের অভিভাবকসহ সবাইকে আমরা আহ্বান জানাচ্ছি, আগামীকালের আমাদের কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করার জন্য।

এর আগে শুক্রবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত নিরাপদ সড়ক দাবিতে রামপুরা ব্রিজের ওপর আন্দোলন করেন শিক্ষার্থীরা। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে চলা কর্মসূচিতে তাদের দাবির পক্ষে বিভিন্ন শ্লোগান দেন।

উল্লেখ, গত বুধবার রামপুরা ব্রিজের আন্দোলন থেকে শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতকরণে ১১ দফা দাবি উত্থাপন করেন শিক্ষার্থীরা।

দাবিগুলো হলো─

১. সড়কে নির্মম কাঠামোগত হত্যার শিকার নাঈম ও মাঈনউদ্দিনের হত্যার বিচার করতে হবে। তাদের পরিবারকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। গুলিস্তান ও রামপুরা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় পথচারী পারাপারের জন্য ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করতে হবে।

২. সারাদেশে সকল গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ পাস (অর্ধেক ভাড়া) সরকারি প্রজ্ঞাপন দিয়ে নিশ্চিত করতে হবে। হাফ পাসের জন্য কোনো সময় বা দিন নির্ধারণ করে দেওয়া যাবে না। বর্ধিত বাস ভাড়া প্রত্যাহার করতে হবে। সকল রুটে বিআরটিসির বাসের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

৩. গণপরিবহনে ছাত্রছাত্রী এবং নারীদের অবাধ যাত্রা ও সৌজন্যমূলক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

৪. ফিটনেস ও লাইসেন্সবিহীন গাড়ি এবং লাইসেন্সবিহীন চালককে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। গাড়ি ও ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে বিআরটিএর দুর্নীতির বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।

৫. সকল রাস্তায় ট্রাফিক লাইট, জেব্রা ক্রসিং নিশ্চিত করাসহ জনবহুল রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশ এর সংখ্যা বাড়াতে হবে। ট্রাফিক পুলিশের ঘুষ দুর্নীতির বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।

৬. বাসগুলোর মধ্যে বেপরোয়া প্রতিযোগিতা বন্ধে এক রুটে এক বাস এবং দৈনিক আয় সকল পরিবহন মালিকের মধ্যে তাদের অংশ অনুযায়ী সমানভাবে বণ্টন করার নিয়ম চালু করতে হবে।

৭. শ্রমিকদের নিয়োগপত্র ও পরিচয়পত্র নিশ্চিত করতে হবে। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বাতিল করতে হবে। চুক্তির ভিত্তিতে বাস দেওয়ার বদলে টিকিট ও কাউন্টারের ভিত্তিতে গোটা পরিবহন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে। শ্রমিকদের জন্য বিশ্রামাগার ও টয়লেটের ব্যবস্থা করতে হবে।

৮. গাড়ি চালকের কর্মঘণ্টা একনাগাড়ে ৬ ঘণ্টার বেশি হওয়া যাবে না। প্রতিটি বাসে ২ জন চালক ও ২ জন সহকারী রাখতে হবে। পর্যাপ্ত বাস টার্মিনাল নির্মাণ করতে হবে। পরিবহন শ্রমিকদের যথাযথ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে।

৯. যাত্রী, পরিবহন শ্রমিক ও সরকারের প্রতিনিধিদের মতামত নিয়ে সড়ক পরিবহন আইন সংস্কার করতে হবে এবং এর বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে হবে।

১০. ট্রাক, ময়লার গাড়িসহ অন্যান্য ভারী যানবাহন চলাচলের জন্য রাত ১২টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত সময় নির্ধারিত করে দিতে হবে।

১১. মাদকাসক্তি নিরসনে গোটা সমাজ জুড়ে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে। চালক-সহকারীদের জন্য নিয়মিত ডোপ টেস্টের ও কাউন্সিলিং এর ব্যবস্থা করতে হবে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved