শিরোনাম :
‘ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক কৌশলগত অংশীদারদের চেয়ে গভীরতর’ পানিতে ডুবে মামাতো-ফুফাতো ভাইয়ের মৃত্যু চীন-রাশিয়া সদয় হলে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেহিসেবি বোলিং-ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশের হার পায়রা সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ৫২ কোটি টাকা সাশ্রয় দেশে ডেঙ্গুতে একজনের প্রাণহানি, আরও শনাক্ত ১৭৯ সরকার সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপিকে দায়ী করছে: ফখরুল বাংলাদেশে করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৫ ‘বাংলাদেশে চীনের উপস্থিতি ভারতের স্বার্থের সঙ্গে সাংঘর্ষিক’ শতভাগ মানুষ টিকা না পাওয়া পর্যন্ত মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি আওয়ামী লীগ ৭৫- এ বাকশাল করে গণতন্ত্র হত্যা করেছে : মোশাররফ সাম্প্রদায়িক হামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ প্রকাশ ফের পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পাবে জম্মু-কাশ্মির: অমিত শাহ দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করলে একটি গোষ্ঠীর কদর বাড়ে : প্রধানমন্ত্রী আজ আন্তর্জাতিক ডলফিন দিবস

দ্রুত শক্তি বাড়াবে যে ৭ খাবার

  • বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

স্বাস্থ্য ডেস্ক : হয়তো আপনি অন্যদের মতো নন। বাকিরা যেখানে হৈ-হুল্লোড় করে দিন কাটাচ্ছে, আপনি এককোণে একা চুপচাপ বসে আছেন। এমন নয় যে আপনার খুব মন খারাপ। কিন্তু আপনি ক্লান্ত অনুভব করছেন। শারীরিক এই ক্লান্তির প্রভাব পড়ছে মনেও। একটু খেয়াল করে দেখুন তো, এই ক্লান্তির কারণ আপনার দৈনন্দিন খাবারের তালিকা নয় তো?

ক্লান্তি কাটাতে কিংবা দ্রুত শক্তি পেতে সাহায্য করে ভিটামিন বি১২ সমৃদ্ধ খাবার। এ ধরনের খাবার আমাদের প্রায় সবার বাড়িতেই থাকে। প্রয়োজন শুধু এর উপকারিতা সম্পর্কে জানা এবং নিয়ম মেনে খাওয়ার। ভিটামিন বি১২ আমাদের শরীরের সক্রিয় কার্যকারিতার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টির একটি। এটি কোবালামিন নামেও পরিচিত। এটি একটি অপরিহার্য পুষ্টি যা বিপাক বাড়াতে সাহায্য করে এবং আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে

নিরামিষভোজীরা মাছ-মাংস এবং দুগ্ধজাত খাবার গ্রহণ না করার জন্য তাদের শরীরে ভিটামিন বি১২ এর অভাব দেখা দিতে পারে, এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, যারা নিরামিষভোজী তাদের অবশ্যই একজন মেডিকেল বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়া উচিত এবং শরীরের সক্রিয় কার্যকারিতা নিশ্চিত করার জন্য নিয়মিতভাবে মাল্টিভিটামিন এবং বি১২ সম্পূরক গ্রহণ করা উচিত। এছাড়া সিরিয়াল, টফু ইত্যাদি ধরনের খাবার তাদের প্রতিদিনের খাবারে যোগ করা উচিত।

শরীরে ভিটামিন বি১২ এর গুরুত্ব বিবেচনা করে বিশেষজ্ঞরা একটি স্বাস্থ্যকর পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ খাবারের একটি তালিকা তৈরি করেছেন। এর সবচেয়ে ভালো দিক হলো, এই খাবারগুলো দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য বাড়িতে সহজেই পাওয়া যায়। জেনে নিন এমন ৭টি খাবারের তালিকা যা আপনাকে দ্রুত শক্তি ফিরিয়ে দেবে

মাছ : মাছ ভিটামিন বি ১২ এর সমৃদ্ধ উৎস। সামুদ্রিক মাছ বিশেষ করে টুনা, স্যামন, সার্ডিন ইত্যাদিতে পর্যাপ্ত ভিটামিন বি১২ পেতে পারেন। মার্কিন কৃষি বিভাগের মতে, এককাপ বা ১৫০ গ্রাম নিষ্কাশিত সার্ডিন ফিশে পর্যাপ্ত ভিটামিন বি১২ থাকে।

দুধ : দুধকে ভিটামিন বি১২ এর একটি চমৎকার উৎস হিসেবেও বিবেচনা করা হয়। এজন্য বিশেষজ্ঞরা ভিটামিন বি১২ এর অভাব রোধে প্রতিদিন দুধ খাওয়ার পরামর্শ দেন। এছাড়াও এটি ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি উভয়েরই একটি নির্ভরযোগ্য উৎস। ইউএসডিএ অনুসারে, এককাপ দুধ প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন বি১২ এর ৪৫% সরবরাহ করে।

দই : দুধ খাওয়ার ক্ষেত্রে কারও কারও সমস্যা থাকলেও দইয়ের ক্ষেত্রে তেমন নয়। এটি একটি জনপ্রিয় দুগ্ধজাত পণ্য। দই আপনাকে প্রচুর ভিটামিন বি১২ পৌঁছে দেবে। এটি ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ডি এবং অন্যান্য প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ। তাই শক্তি পেতে প্রতিদিন রাখুন পাতে।

ডিম : ডিম প্রায় সবার বাড়িতেই থাকে। দ্রুত শক্তি ফেরাতে ভিটামিন বি১২ সমৃদ্ধ এই খাবার ভীষণ কার্যকরী। ডিম অনেকটা অলরাউন্ডারের ভূমিকা পালন করে। এটি প্রোটিন এবং ভিটামিনে সমৃদ্ধ। এতে আছে প্রয়োজনীয় ভিটামিন বি১২ ও ভিটামিন বি২। একটি সেদ্ধ ডিমে প্রায় ১.৬ মাইক্রোগ্রামের কাছাকাছি ভিটামিন বি১২ থাকে।

ফোর্টিফায়েড সিরিয়াল : যারা আমিষ খান না তাদের জন্য ভিটামিন বি১২ এর ঘাটতি মেটাতে কাজ করে এ ধরনের খাবার। চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে তারা এ ধরনের খাবার খেতে পারেন। সিরিয়াল, টফু ইত্যাদি খাবার নিরামিষভোজীদের জন্য উপকারী।

মুরগির মাংস : বেশিরভাগ সময় অসুস্থ ব্যক্তিকে মুরগির মাংসের স্যুপ খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। এর কারণ হলো, এটি দ্রুত শক্তি ফেরাতে কাজ করে। মুরগির মাংস প্রোটিনের একটি শক্তিশালী উৎস। এছাড়া এতে আছে পর্যাপ্ত ভিটামিন বি১২, যা আপনাকে সুস্থ ও শক্তিশালী রাখতে কাজ করে।

নিউট্রিশনাল ঈস্ট : এটি নিরামিষভোজীদের জন্য আদর্শ একটি খাবার হতে পারে। এটি জনপ্রিয় একটি খাবার যা নানা ধরনের নিরামিষ রান্নায় ব্যবহৃত হয়। পুষ্টিবিদরা বলছেন, খাবারের তালিকায় নিউট্রিশনাল ঈস্ট যোগ করলে তা প্রতিদিনের ভিটামিন বি১২ এর ঘাটতি অনেকটাই মেটাতে পারে।

ভিটামিনের সঠিক উৎস বাছাই করা এবং সেগুলো খাবারের তালিকায় পর্যাপ্ত রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ। এর পাশাপাশি মনে রাখবেন, কোনোকিছুই অতিরিক্ত গ্রহণ করা ভালো নয়। তাই খাবার গ্রহণের ক্ষেত্রেও সেদিকে খেয়াল রাখবেন। সুস্থ থাকুন, ফিট থাকুন।

এনডিটিভি অবলম্বনে এইচএন

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved