শিরোনাম :
পবিত্র আশুরা আজ লঞ্চভাড়া ৮ ধাপে ৫০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব নির্বাচনী জোট করেছিলাম, তারা এত দুর্নীতি করবে ভাবিওনি : চুন্নু হরতাল অবরোধ ছাড়া সরকারের পতন ঘটবে না: আব্বাস সরকারের সময় ফুরিয়ে এসেছে : ফখরুল স্বর্ণালংকার ফেরতে ৮৫, পরিবর্তনে ৯২ শতাংশ অর্থ মিলবে বাংলাদেশে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯৬ সাড়ে ৫ বছরে গণপরিবহনে ৩৫৭ ধর্ষণ দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা বিএনপির ওয়ালটনের লভ্যাংশ ঘোষণা ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৯ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত পাচারের টাকা ফেরতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা বঙ্গবন্ধু পরিবারের খুনিদের মুখোশ উন্মোচন জরুরি: হানিফ খোলাবাজারে ডলারের দাম ১১৫ টাকা ছাড়াল ঢাকা থেকে বিভিন্ন রুটের বাসভাড়ার তালিকা প্রকাশ

দেশের মানুষ প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলকে ক্ষমতায় দেখতে চায়: নাছিম

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২১

ঢাকা: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ। তাই তারা কোন স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশের জনগণ এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর খামারবাড়িতে কেআইবি অডিটোরিয়ামে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত বিজয়ের ৫০ বছর সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের পর যারা মেনে নিতে পারেনি তারাই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে হত্যা করে। তাদের হত্যার লক্ষ শুধু বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার ছিলো না। তারা চেয়েছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে তার আদর্শকে হত্যা করতে। দেশের গণতন্ত্রকে হত্যা করে বাংলাদেশ থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে মুছে ফেলতে। দেশের সংবিধানকে ধ্বংস করে পুনরায় পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলো রাজাকারের দোসররা।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু তার জীবনের ১৪ বছর জেলে কাটিয়েছেন। তিনি সব সময় চেয়েছেন দেশের মানুষ ভালো থাকুক। তারা সুন্দর ভাবে খেয়ে দেয়ে বেচে থাকুক। তিনি সব সময় দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করেছেন। দেশের বিষয়ে বঙ্গবন্ধু কখনো কারো সাথে আপোষ করেননি। সব সময় ভাবতেন দেশকে কিভাবে উন্নয়নের শিখরে নেওয়া যায়। কিন্তু খুনিরা সেটি মেনে নিতে পারেনি তাই তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে।

নাছিম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছেন। এসব যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির মধ্যদিয়ে দেশ কলংকমুক্ত হয়েছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মধ্যদিয়ে তিনি বুঝিয়েছেন কাউকে হত্যা করে এ দেশে রাজনীতি করা যায় না। বঙ্গবন্ধুর এ দেশে অন্যায় করলে শাস্তি পেতে হয়। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে।

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালে দেশে আসার পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষকে একত্র করে দেশের গণতন্ত্রকে উদ্ধারে লড়াই করেছেন। দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছেন। দেশের কোথাও এখন খাদ্যের অভাব নেই। শিক্ষা ও সংস্কৃতিতে দেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশ এখন আত্মনির্ভরশীল দেশে পরিণত হয়েছে। সারা বিশ্বে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল। বিশ্বের বড় বড় রাষ্ট্র প্রধানরা বাংলাদেশকে এখন মডেল হিসেবে উপস্থাপন করে। পাকিস্তান এখন বাংলাদেশকে দেখে হিংসে করে।

কৃষিবিদদের উদ্দেশ্য করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আপনারা আগামী দিনের দেশ গড়ার কারিগর। একটি রাজনৈতিক দল সব সময় দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে। তারা কখনো দেশের ও দেশের মানুষের ভালো চায় না। তাদের ব্যাপারে আপনাদের সজাগ থাকতে হবে। তাদের সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে দেশকে উন্নতির দিকে নিয়ে যেতে হবে।

কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের সভাপতি কৃষিবিদ প্রফেসর ড. মোঃ শহীদুর রহমান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মহাসচিব মো. খায়রুল আলম (প্রিন্স), কৃষকলীগ সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ সহ সহস্রাধিক কৃষিবিদ।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved