শিরোনাম :
‘ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক কৌশলগত অংশীদারদের চেয়ে গভীরতর’ পানিতে ডুবে মামাতো-ফুফাতো ভাইয়ের মৃত্যু চীন-রাশিয়া সদয় হলে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেহিসেবি বোলিং-ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশের হার পায়রা সেতু নির্মাণ প্রকল্পে ৫২ কোটি টাকা সাশ্রয় দেশে ডেঙ্গুতে একজনের প্রাণহানি, আরও শনাক্ত ১৭৯ সরকার সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে বিএনপিকে দায়ী করছে: ফখরুল বাংলাদেশে করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৫ ‘বাংলাদেশে চীনের উপস্থিতি ভারতের স্বার্থের সঙ্গে সাংঘর্ষিক’ শতভাগ মানুষ টিকা না পাওয়া পর্যন্ত মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি আওয়ামী লীগ ৭৫- এ বাকশাল করে গণতন্ত্র হত্যা করেছে : মোশাররফ সাম্প্রদায়িক হামলা নিয়ে প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ প্রকাশ ফের পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা পাবে জম্মু-কাশ্মির: অমিত শাহ দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করলে একটি গোষ্ঠীর কদর বাড়ে : প্রধানমন্ত্রী আজ আন্তর্জাতিক ডলফিন দিবস

তালেবান সরকারের শপথ বাতিল

  • শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক: আজ শনিবার তালেবান নেতৃত্বাধীন আফগানিস্তানের নতুন অন্তর্র্বতীকালীন সরকারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হওয়ার কথা থাকলেও ‘মিত্র দেশগুলোর চাপে’ ওই শপথ অনুষ্ঠান সম্পূর্ণভাবে বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তালেবানের নতুন সরকারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে রাশিয়া, ইরান, চীন, কাতার ও পাকিস্তানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বলে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যাচ্ছে। তবে রুশ বার্তা সংস্থা তাসের শুক্রবারের প্রতিবেদন অনুযায়ী মিত্র দেশগুলোর পক্ষ থেকে চাপ আসায় শনিবারের শপথ অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়।

গতকাল শুক্রবার রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়, তালেবানের সরকারের অভিষেক অনুষ্ঠানে ক্রেমলিনের পক্ষ থেকে কেউ থাকবে না। এর আগে অবশ্য মস্কো জানিয়েছিল, আফগানিস্তানের নতুন অন্তবর্তীকালীন সরকারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে রাশিয়ার পক্ষ থেকে রাষ্ট্রদূত পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

তাসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের ন্যাটো মিত্ররা ৯/১১ হামলার বিশ বছর পূর্তির দিনে তালেবানের নতুন সরকারের শপথ অনুষ্ঠান আয়োজনকে ‘অমানবিক’ আখ্যা দিয়ে কাতার সরকারকে তা বাতিল করতে তালেবানকে পরামর্শ দেওয়ার জন্য চাপ দেয়। এরপর শপথ অনুষ্ঠান বাতিল করার সিদ্ধান্ত আসলো।

যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের ন্যাটো মিত্ররা এ নিয়ে আরও বলে, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার বিশ বছর পূর্তির দিনে তালেবানের নতুন সরকারের শপথগ্রহণ তাদের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়ার বিষয়টিকে আরও জটিল করে তুলবে। এছাড়া এমন দিনে তাদের শপথগ্রহণ বিশ্বব্যাপী জিহাদিদের জন্য হবে অনুপ্রেরণাদায়ক।

তালেবান সরকারের সাংস্কৃতির কমিশনের সদস্য ইনামুল্লাহ সামানগানি অবশ্য টুইটে লিখেছেন, ‘কয়েকদিন আগেই নতুন আফগান সরকারের অভিষেক অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়। সরকার মানুষকে আর বিভ্রান্ত করতে চায় না। ইতোমধ্যে ইসলামিক আমিরাত আফগানিস্তানে মন্ত্রিসভা ঘোষণা হয়েছে। সবাই কাজও শুরু করেছেন।’

উল্লেখ্য, ৯/১১ হামলার এক মাসের মাথায় আল-কায়েদাকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ তুলে আফগানিস্তানে সামরিক অভিযান শুরু করেছিল যুক্তরাষ্ট্র।

অভিযানের এক মাস পর আফগানিস্তানের তৎকালীন তালেবান সরকার ক্ষমতাচ্যুত হয়। গত ৩০ আগস্ট মার্কিন সেই অভিযানের সমাপ্তিতে ফের ক্ষমতায় ফিরেছে তালেবান।

গত ১৫ আগস্ট কাবুলে ঢোকার মধ্য দিয়ে গোটা আফগানিস্তানে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করে তালেবান। গত মঙ্গলবার তালেবান অন্তবর্তীকালীন সরকারের ঘোষণা দিয়েছে। একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকারের প্রতিশ্রুতি দিলেও পুরুষ-সর্বস্ব সরকার গঠন করে পূর্বের ন্যায় শরিয়াহ আইনে দেশ শাসনের ঘোষণা দিয়েছে এই গোষ্ঠী।

 

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved