শিরোনাম :
কেন্দ্রসচিব থেকে পিয়ন, প্রশ্ন ফাঁসে জড়িত সবাই ! দেশ যে এগিয়ে যাচ্ছে তা জনগণকে জানাতে হবে: তথ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে মোটামুটি ভালো পরিমাণে টাকা আছে: পরিকল্পনামন্ত্রী দুর্গাপূজায় জ‌ঙ্গি হামলার শঙ্কা র‌য়ে‌ছে: ডিএম‌পি ক‌মিশনার অস্ত্র সহায়তায় ইউক্রেনকে নতুন করে ১১০ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে নিম্ন ও মধ্যবিত্তরা বিলুপ্তির পথে : ডা. ইরান শেখ হাসিনার হাত ধরেই উন্নত দেশ গড়ব : মেয়র তাপস মুষ্টিমেয় রাজনৈতিক লোক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় : আমু ২৪ ঘণ্টায় ৫০৬ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি নার্স-সিন্ডিকেট চক্র পাচার করছে লাখ লাখ টাকার ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থায় ফিরে যাওয়ার সুযোগ নেই: আইনমন্ত্রী আন্দোলনের ঘোষণায় ১৩ বছর, মানুষ বাঁচে কয় বছর: বিএনপিকে কাদের ৫ বছর রোহিঙ্গাদের লালন না করতে হলে দেশ আরও উন্নত হতো ইরানে বিক্ষোভ: হিজাব বিতর্কের আড়ালে কী? আজ কোনো অভিযোগ নাই, অনুযোগ নাই : বিদায় আইজিপি

ডেল্টা লাইফ ইন্সরেন্সের অডিট রিপোর্টে ‘এলাহি কান্ড’!

  • শনিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২২

ঢাকা : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বিমা খাতের কোম্পানি ডেল্টা লাইফ ইন্সুরেন্সে ব্যাপক অনিয়ম চলছে। গ্রাহককে পলিসিরি টাকা না দেওয়া, অর্থ আত্মসাৎ ও দুর্নীতি এবং রাজস্ব ফাঁকি/বকেয়া এবং অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে তহবিল বাড়িয়ে দেখানোর এলাহি কান্ড চলছে। পাশাপাশি সরকারের বিপুল পরিমান রাজস্ব ফাঁকি দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

শুধু তা-ই নয়, ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে টাকা আদায় হলেও তা কোম্পানির হিসাবে দেখানো হয়নি। ব্যাংক হিসাবে রয়েছে বড় ধরনের গরমিল। এমনকি কোম্পানির আর্থিক রিপোর্ট তৈরির ক্ষেত্রেও মানদণ্ড মানা হয়নি। সব মিলিয়ে প্রতিষ্ঠানটির অডিট রিপোর্টে ‘এলাহি কাণ্ড’ ঘটছে!

এর মধ্যে রয়েছে ভুয়া বিলের মাধ্যমে আইনি খরচ, ভবন রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় এবং ঢাকা-চটগ্রামের বিভিন্ন হোটেলের খাবারের নামে টাকা উত্তোলন। এছাড়া মোটা অঙ্কের অর্থ আত্মসাৎ করা হয়েছে কর পরিশোধের নামে। পাশাপাশি সফটওয়্যার কেনা, কোম্পানির অর্থে কেনা শেয়ার লেনদেনে কারসাজি এবং ব্যক্তিগত কাজে বিদেশ ভ্রমণেও এ অর্থ ব্যয় করা হয়। বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের (আইডিআরএ) তদন্ত প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সম্প্রতি প্রতিবেদনটি অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

আইডিআরএর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, কোম্পানির ইন্টারনাল ও এক্সটারনাল নিরীক্ষায় ডেলটা লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানির ৬৩৮ কোটি টাকার দুর্নীতি ও অনিয়ম উদ্ঘাটন হয়েছে। সেখানে আরও বলা হয়, কোম্পানির বরখাস্তকৃত পরিচালনা পর্ষদ এবং ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে উল্লিখিত অনিয়ম করা হয়। ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে প্রায় ১১ মাস আগে কোম্পানির তৎকালীন চেয়ারম্যানসহ পরিচালনা পর্ষদকে বরখাস্ত করে আইডিআরএ। এরপর প্রশাসক নিয়োগ দিয়ে পরিচালনা করা হচ্ছে যাবতীয় কার্যক্রম।

সম্প্রতি ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড-এর বিভিন্ন অনিয়ম বিষয় বাংলাদেশ সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ কমিশন কর্তৃক নিয়োগকৃত অডিট ফার্ম M/S MABS & J Partenrs, Chartered Accountants কর্তৃক দাখিলকৃত ২০১৬-২০২০ Special Audit Report গত ২৬ আগস্ট ২০২১ প্রদান করেন যার মাধ্যমে প্রায় ১২৬৭,৯১,৯৯,২৬৬ কোটি টাকার আত্মসাৎ ও দুর্নীতি, রাজস্ব ফাঁকি/বকেয়া এবং অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কোম্পানির আর্থিক ক্ষতিসাধন হয়। যার মধ্যে নিরীক্ষা প্রতিবেদনে ৪২টি High risk, ২৩ টি medium risk, এবং ২টি Low risk উল্লেখ করা হয়।

এছাড়া বীমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্সুরেন্স ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড রেগুলেটরি অথরিটির (আইডিআরএ) ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড-এর বিভিন্ন অনিয়ম বিষয় নিয়োগকৃত অডিট ফার্ম M/S ACNABIN, Chartered Accountants কর্তৃক দাখিলকৃত আংশিক Special Audit Report গত ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ প্রদান করেন যার মাধ্যমে প্রায় ২৯১৭,৮২,৭১,৬৩৮ কোটি টাকার আত্মসাৎ ও দুর্নীতি, রাজস্ব ফাঁকি/বকেয়া এবং অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কোম্পানির আর্থিক ক্ষতিসাধন হয়।

যার মধ্যে নিরীক্ষা প্রতিবেদনে Date ডিলেট, করোপরেট গর্ভনেন্স, কোম্পানির আর্থিক অনিয়ম, আত্মসাৎ ও দুর্নীতি, রাজস্ব ফাঁকি/বকেয়া উল্লেখ করা হয়। নিয়োগ দেওয়া প্রতিষ্ঠানের বিশেষ নিরীক্ষা ও তদন্তে উঠে এসেছে উল্লিখিত সব চাঞ্চল্যকর তথ্য। এমন নাজুক অবস্থা দেখে সংশ্লিষ্টদের মন্তব্য-নানা অনিয়মে ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানটির ‘বারোটা বেজেছে’। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে এই মুহূর্তে কি করনীয় তা নিয়ে চলছে চুলছোড়া বিশ্লেষণ।

এছাড়া M/S Aziz Halim Khair Chowdhury, Chartered Accountants কর্তৃক দাখিলকৃত ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড-এর প্রাক্তন পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাৎ, বে-আইনিভাবে একই পরিবার থেকে ১০ শতাংশের এর অধিক শেয়ার ধারণের মাধ্যমে কোম্পানিতে পরিবারতন্ত্র কায়েম এবং কোম্পানির উদ্যোক্তা না হয়েও একই পরিবার থেকে চারজন উদ্যোক্তা পরিচালক পদ দখল করে রাখার ফলে বীমা পলিসি গ্রাহকদের স্বার্থে ক্ষুণ্ন হওয়ার বিষয়টি সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়।

এবং যার মধ্যে নিরীক্ষা প্রতিবেদনে প্রায় ১০৬৩,৯০,৬৮,১৫০ কোটি টাকার আত্মসাৎ ও দুর্নীতি, অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে কোম্পানির আর্থিক ক্ষতিসাধন উল্লেখ করা হয়। গত ১৯.০১.২২ তারিখে ১১শ” কোটি টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগে ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানি লিমিটেড-এর প্রাক্তন চেয়ারম্যান মোঃ মঞ্জুরুর রহমান-সহ কয়েকজন কর্মকর্তাকে দুদুক অনুসন্ধান করে।

এ বিষয় জানতে চাইলে বিমা মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ইন্সুরেন্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি (বিআইএ) শেখ কবির হোসেন বলেন, বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা হলো আইডিআরএ। আর এ খাতে স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব তাদের। এ কারণে তারা যেটা ভালো মনে করেন সেটা করবে।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য আইডিআরএর চেয়ারম্যান এম মোশাররফ হোসেনকে ফোন করা হলে তিনি সাড়া দেননি।

 

 

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved