শিরোনাম :
ছিনতাই চক্রের ১৬ সদস্য গ্রেপ্তার, বিপুল মোবাইল-ল্যাপটপ উদ্ধার ফের বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাচ্ছে রামপাল চিলিতে দাবানলে পুড়ল ১৪ হাজার হেক্টর বনভূমি, অন্তত ১৩ জনের মৃত্যু এক সপ্তাহের মধ্যে ঢাকায় আসবেন দুই মার্কিন প্রতিনিধি জ্বালানির দাম আরও বৃদ্ধি চায় আইএমএফ খেলাপি ঋণ: সরকারিতে ১০, বেসরকারি ব্যাংকে ৫ শতাংশে নামানোর প্রতিশ্রুতি ইউক্রেনকে দূরপাল্লার বোমা ‘জিএলএসডিবি’ দেবে যুক্তরাষ্ট্র টেকনাফে বিজিবির অভিযানে ২ লক্ষাধিক ইয়াবা জব্দ মার্কিন আকাশে চীনা নজরদারির বেলুন ‘অগ্রহণযোগ্য’ ৪০টি দেশ বয়কট করতে পারে অলিম্পিক আজ ৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায় ‘পথ ভুলে’ যুক্তরাষ্ট্রে গেছে সেই ‘গোয়েন্দা’ বেলুন, দাবি চীনের তালিবানি শিক্ষানীতির প্রতিবাদ জানানো সেই শিক্ষককে প্রকাশ্যে মারধর বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত প্রায় ২ লাখ, মৃত্যু ১ হাজার ৩শ’র ওপর ভাষার জন্য প্রাণ দেওয়া বিশ্বে অনন্য উদাহরণ : সেনাপ্রধান

ডিসি-এসপিদের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার সুযোগ নেই : ইসি

  • সোমবার, ১০ অক্টোবর, ২০২২

ঢাকা : ভোটের মাঠে দায়িত্ব পালন করা মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও পুলিশ সুপারদের (এসপি) সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর।

তিনি বলেন, সবাই আমরা প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী ৷প্রজাতন্ত্রের দায়িত্বে আছি। সম্পর্ক খারাপ হওয়ার সুযোগ নেই। এ নিয়ে কোনো ভুল বোঝাবুঝিরও সুযোগ নেই।

সোমবার (১০ অক্টোবর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ইসি মো. আলমগীর এসব কথা বলেন।

জেলা পরিষদ ও গাইবান্ধা উপ-নির্বাচনসহ দ্বাদশ ভোটেরও মাঠের পরিস্থিতি জানতে দেশের ৬১ জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে গত শনিবার ঢাকায় বৈঠক করে সাংবিধানিক এ প্রতিষ্ঠান। সেখানে গত ভোট ও জেলা পরিষদ ভোটে মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের পক্ষপাতমূলক আচরণের বিষয়টি বক্তব্যে তুলে ধরেন ইসি আনিছুর রহমান। তখনই সভা কক্ষে হইচই সৃষ্টি হয়। ডিসি এসপিদের আপত্তির মুখে সেই কমিশনার তার বক্তব্য শুনতে তারা (মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তা) ইচ্ছুক কি না জানতে চান। জবাবে মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা নেতিবাচক সাড়া দিলে বক্তব্য থামিয়ে চলে যান তিনি।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে ইসি আলমগীর বলেন, মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার সুযোগ নেই।

এ ঘটনার জেরে ইসির ইমেজ ক্ষুণ্ন হয়েছে কি না, জানতে চাইলে এ কমিশনার বলেন, ওই বিষয় পাস্ট অ্যান্ড ক্লোজড।

আরেক প্রশ্নের জবাবে এ কমিশনার বলেন, বিষয়টা শেষ হয়ে গেছে। সাকসেসফুলি আমাদের আলোচনা শেষ হয়েছে। আমাদের আলোচনা তারা মন দিয়ে শুনেছেন। তারা যেসব সমস্যার কথা বলেছে আমরাও বলেছি, সেগুলো সমাধানে আমাদের সীমিত সক্ষমতার মধ্য দিয়ে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।

ইসি আলমগীর বলেন, আমাদের এখানে এটা একটা টিম ওয়ার্ক। টিমে নানা রকমের সদস্য থাকেন, দ্বিমত থাকে। তারপর বিতর্ক হয়, আলোচনা হয়।

সাবেক এ ইসি সচিব বলেন, এখানে সবাই আমরা দায়িত্ব পালন করতে এসেছি। যে দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ হবেন তাকে বাদ দেওয়া হবে। কারণ প্রতিষ্ঠান তো থাকবে। মানুষ চেঞ্জ হতে পারে৷ প্রতিষ্ঠান তো চেঞ্জ হবে না। কমিশনে আমি যদি আমার রোল প্লে না করতে পারি আমি তো থাকব না। আমার পরিবর্তে আরেকজন আসবে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved