শিরোনাম :
বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনে সরকারের কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান নয়: ফখরুল অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার : প্রধানমন্ত্রী আফগানিস্তানে ত্রাণ পাঠিয়েছে সরকার বন্দুক সহিংসতার ‘মহামারি’ অবসানে লড়াই চলবে : বাইডেন শেখ হাসিনার উন্নয়নের হাতির ভেতরের যে দাঁত নেই, সেটি এখন স্পষ্ট : রিজভী প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৪৭, খাসি ১৮ টাকা নির্ধারণ বিএনপি কর্মীরা রাস্তার ভাষায় কথা বলে : কাদের সিলেটে বন্যায় কৃষিতে ক্ষতি ৯০০ কোটি টাকা ঈদযাত্রার প্রথম দিনেই ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘র‌্যাগ ডে’ উদযাপন বন্ধের নির্দেশ মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধে কে জিতছে? বিশ্বজুড়ে করোনায় একদিনে মৃত্যুতে শীর্ষে ফ্রান্স, সংক্রমণে ইতালি কক্সবাজার সুমদ্রসৈকত থেকে ২ শিশুর মরদেহ উদ্ধার প্রেসক্লাবে নিজের গায়ে আগুন দেওয়া ব্যক্তি মারা গেছেন পুলিশ কর্মকর্তার ২৮ কোটি টাকা আত্মসাতের প্রমাণ দুদকে

ক্লিনফিডেই চলবে বিদেশি চ্যানেল

  • মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২১

ঢাকা : ক্লিনফিডে বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচার সম্ভব নাকি সম্ভব নয়- এ নিয়ে যুক্তি তর্ক এখনও চলছে। অথচ, ইতোমধ্যেই সম্প্রচারে ফিরছে বেশ কয়েকটি বিদেশি স্যাটেলাইট চ্যানেল। ক্লিন ফিড (বিজ্ঞাপন মুক্ত) চ্যানেল বন্ধের পর গত ১ অক্টোবর থেকে ক্যাবল অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) নেতারা বারবার বলেছেন, ‘ক্লিন ফিডে চ্যানেল প্রচার করা সম্ভব নয়।’ এই দাবি তুলে ওই সময়ে কোয়াব বিদেশি চ্যানেল বন্ধ রাখে।

এদিকে টেলিভিশন সংশ্লিষ্টরা বারবার বলেছেন, ক্লিন ফিডেই অনুষ্ঠান সম্প্রচার সম্ভব। এরপর পরবর্তীতে এর বাস্তবায়ন দেখা গেছে। সেই সূত্রে অ্যাটকোর (অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্স) সহসভাপতি মোজাম্মেল হক বলেছিলেন, ‘ক্লিন ফিড সম্ভব এবং প্রযুক্তিগতভাবেই সম্ভব।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ক্যাবল অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) সভাপতি আনোয়ার পারভেজ বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি এখনও বলছি, ক্লিন ফিড চালানো সম্ভব নয়। এ কারণে আমরা কোনো চ্যানেল চালাতে পারছি না। আমরা ক্লিন ফিড চালাতে পারব না। তাই বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচার বন্ধ রেখেছি। যতদিন বিষয়টির সুরাহা না হচ্ছে, ততদিন সম্প্রচার বন্ধ থাকবে।’

কিছুটা দ্বিধা-দ্বন্দ্ব রেখেই তিনি বলেন, ‘এখন যেসব স্যাটেলাইট চ্যানেল ক্লিন ফিড সম্প্রচার করছে সেগুলো পরীক্ষামূলক। আমরা চালিয়ে দেখছি, কোনো বিজ্ঞাপন আসে কিনা। যদিও কোনো বিজ্ঞাপন আসছে না, তবুও একটা আশঙ্কা থেকে যায়। এটা চেক করে দেখা হচ্ছে।’

এদিকে জি বাংলা, স্টার জলসা সম্প্রচারে এসেছে। অন্যান্য চ্যানেল কবে আসছে জানতে চাইলে আনোয়ার পারভেজ বলেন, ‘কবে আসবে সেটা এখনই বলা সম্ভব নয়। ব্রডকাস্ট কর্তৃপক্ষ এখনও আমাদের কিছু বলেনি। যারা ক্লিন ফিড দিয়েছে তাদেরটা আমরা পরীক্ষামূলকভাবে সম্প্রচার করছি। আবার সরাসরি আমরা কিছুই করছি না। সংশ্লিষ্ট চ্যানেল কর্তৃপক্ষই করে দিচ্ছে। আমরা শুধু নেটওয়ার্কে চালু রেখেছি।’

প্রসঙ্গত, গত ১ অক্টোবর কোয়াবের (ক্যাবল অপারেটর্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ) সদস্যরা ও ডিটিএইচ (ডাইরেক্ট টু হোম) অপারেটররা দেশে বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচার বন্ধ রাখে। বিদেশি চ্যানেল বিজ্ঞাপনমুক্ত (ক্লিন ফিড) রাখার বিষয়ে সরকার কড়াকড়ি আরোপ করলে স্যাটেলাইট চ্যানেলগুলোর সম্প্রচার বন্ধ ছিল। ক্লিন ফিড দেওয়ার পরই এক এক করে চ্যানেলগুলো সম্প্রচারে ফিরছে।

জি বাংলা সম্প্রচারে ফেরার (১৫ অক্টোবর) পরদিনই ফিরলো স্টার জলসা। চ্যানেলটি বিজ্ঞাপনমুক্ত ক্লিন ফিড প্রচার করছে। শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাত থেকেই চ্যানেলটি অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে।

ডিটিএইচ আকাশ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১৬টি চ্যানেল ক্লিন ফিড হিসেবে সম্প্রচারিত হচ্ছে। এ সংখ্যা শিগগিরই আরও বাড়বে।

তথ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে বর্তমানে ক্লিন ফিডে প্রচারিত হচ্ছে জি বাংলা, স্টার জলসা, বিবিসি, সিএনএন, আল-জাজিরা এইচডি, ডয়েচে ভেলে, কেবিএস ওয়ার্ল্ড, এআরআই র‌্যাংগ টিভি, এনএইচকে ওয়ার্ল্ড, সিজিটিএন, রাশিয়া টুডে, ফ্রান্স ২৪, লোটাস, ট্রাভেল এক্সপি এইচডি, আল কোরআন, আল সুন্না, ট্রাভেল এক্সপি, এইচবিও ও দূরদর্শন।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved