শিরোনাম :
ভারতে বিচার শেষে পি কে হালদারকে পাওয়া যেতে পারে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইন্দোনেশিয়ায় পামের দাম ‘অর্ধেক’, মাথায় হাত চাষিদের ইভ্যালির এমডিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি জঙ্গি ইস্যু সরকারের নতুন খেলা : আ স ম রব বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার মতো হওয়ার সুযোগ নেই: বিশ্বব্যাংক নেত্রকোনায় ফসলরক্ষা বাঁধ ভেঙে তলিয়ে যাচ্ছে জমির ফসল আকস্মিক ভাঙ্গনে মুছে যেতে বসেছে গোবিন্দগঞ্জের গ্রামটি বেসরকারি কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণেও লাগাম, পরিপত্র জারি বিএনপির মুখে অর্থ পাচার নিয়ে কথা মানায় না : তথ্যমন্ত্রী সাংহাইয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলছে আজ পি কে হালদারকে অর্থপাচারে সহায়তা করেছে সরকার : মোশাররফ ঈদে ওয়ালটনের ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশব্যাক ও কোটি কোটি টাকার ফ্রি পণ্য ভারতের গম রপ্তানি বন্ধে বাংলাদেশে প্রভাব পড়বে ‘শক্তিশালী সেনাবাহিনী’ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে আফগানিস্তান পতন ধারায় লেনদেন চলছে

উত্তরে শৈত্যপ্রবাহ দুই-তিন দিনের মধ্যে

  • রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১

ঢাকা : আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক বলেন, ‘এ মুহূর্তে সারা দেশে শৈত্য প্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও উত্তরের জেলাগুলো বিশেষ করে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে আগামী ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে একটি শৈত্যপ্রবাহ নামতে পারে।’

ধীরে ধীরে বাড়ছে শীত। আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে ঢাকা ও এর আশে পাশের এলাকায় তাপমাত্রা আরও কমবে। আর হালকা থেকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে দেশের উত্তরাঞ্চলে।

এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। বলা হয়েছে, এখনই সারা দেশে তাপমাত্রা একেবারে না কমলেও উত্তরের জেলাগুলোতে শৈত্যপ্রবাহের আভাস মিলছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, গত কিছু দিন ধরে সারা দেশে তুলনামূলকভাবে শীত বাড়তে শুরু করেছে। এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক নিউজবাংলাকে বলেন, ‘এ মুহূর্তে সারা দেশে শৈত্য প্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও উত্তরের জেলাগুলো বিশেষ করে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে আগামী ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে একটি শৈত্যপ্রবাহ নামতে পারে।’

তিনি জানান, বর্তমানে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে গড় তাপমাত্রা রয়েছে ১২ থেকে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে তাপমাত্রা কমে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ওই দুই বিভাগের বাইরে দেশের অন্য জেলাগুলোতে এখনই শৈত্যপ্রবাহ নামার সম্ভাবনা নেই। আরও কিছু দিন সময় লাগবে। তবে সারা দেশেই তুলনামূলকভাবে শীত বাড়তে শুরু করেছে।

শৈত্যপ্রবাহের বিষয়টি ব্যাখ্যা করে আবহাওয়াবিদ নাজমুল জানান, তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে শুরু করে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে থাকলে যে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়, তাকে একবারে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়। তাপমাত্রা ৬ থেকে ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে সেখানে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বইছে ধরে নেয়া হয়। আর তাপমাত্রা ৪ থেকে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে থাকলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ধরা হয়।

অবহাওয়া অধিপ্তরের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, রোববার সকালে ঢাকা বিভাগের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

সকালে বাতাসের আদ্রতা ছিল ৭২ শতাংশ, যা বিকেলে নেমে আসতে পারে ৩৭ শতাংশে। আকাশ আংশিক মেঘলা থাকলেও কোনো বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় রাতের তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে। আগামী পাঁচ দিনে অবহাওয়া সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved