শিরোনাম :
পবিত্র আশুরা আজ লঞ্চভাড়া ৮ ধাপে ৫০ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব নির্বাচনী জোট করেছিলাম, তারা এত দুর্নীতি করবে ভাবিওনি : চুন্নু হরতাল অবরোধ ছাড়া সরকারের পতন ঘটবে না: আব্বাস সরকারের সময় ফুরিয়ে এসেছে : ফখরুল স্বর্ণালংকার ফেরতে ৮৫, পরিবর্তনে ৯২ শতাংশ অর্থ মিলবে বাংলাদেশে করোনায় ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯৬ সাড়ে ৫ বছরে গণপরিবহনে ৩৫৭ ধর্ষণ দুইদিনের কর্মসূচি ঘোষণা বিএনপির ওয়ালটনের লভ্যাংশ ঘোষণা ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৯ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত পাচারের টাকা ফেরতে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা বঙ্গবন্ধু পরিবারের খুনিদের মুখোশ উন্মোচন জরুরি: হানিফ খোলাবাজারে ডলারের দাম ১১৫ টাকা ছাড়াল ঢাকা থেকে বিভিন্ন রুটের বাসভাড়ার তালিকা প্রকাশ

ইনিংস ব্যবধানে হারল বাংলাদেশ

  • মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২২

স্পোর্টস ডেস্ক : লিটন দাসের শতকও শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের ইনিংস পরাজয় থামাতে পারল না। ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭৮ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। ফলে দ্বিতীয় টেস্টে ইনিংস ও ১১৭ রানে পরাজিত হলো বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে হারের ফলে ১-১ সমতায় শেষ হলো সিরিজ।

এদিকে দ্বিতীয় ইনিংসে কিউইদের হয়ে ৪ উইকেট পেয়েছেন কাইল জেমিসন এবং তিনটি উইকেট পেয়েছেন ওয়াগনার।

ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নেমেও বিপর্যয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ। তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে খেলতে থাকেন লিটন দাস। দ্বিতীয় ইনিংসেও যেখানে সবাই ব্যর্থ, সেখানে নিজের দ্বিতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে ফেলেন তিনি। তবে শতক করে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি লিটন। ১০২ রানে জেমিসনের বলে কাঁটা পড়েন লিটন।

তৃতীয় দিনের শুরুতে ওপেনার সাদমান এবং নাজমুলকে হারানোর পর দেখে শুনে খেলছিলেন টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক এবং মোহাম্মদ নাঈম। তবে তারাও বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি। আর প্রথম ইনিংসে ফিফটি হাঁকানো ইয়াসিরও ফিরে যান মাত্র ২ রান করেই।

এরপর শত রানের জুটি গড়ে দলের হাল ধরেন লিটন ও নুরুল। তবে নুরুল আউট হলে একসময় একাই লড়ে যান লিটন। তবে লিটন যখন শতক করে আউট হওয়ার পর প্যাভিলিয়নে ফেরেন, তখনই শেষ হয় যায় সব আশা। আর তারপর ইনিংস পরাজয় আর এড়াতে পারেনি বাংলাদেশ।

৩৯৫ রানে পিছিয়ে থাকায় যেখানে ইনিংস মেরামতই মূল লক্ষ্য সেখানে তৃতীয় দিনের লাঞ্চ বিরতি পর্যন্ত ২ উইকেট হারিয়ে ৭৪ রান তুলতে পেরেছিল সফরকারীরা।

হ্যাগলি ওভালে দ্বিতীয় দিন শেষে ১২৬ রানে অলআউট হয়ে ফলোঅনে পড়ে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের প্রথম ইনিংস থেকে বাংলাদেশ পিছিয়ে ছিল ৩৯৫ রানে। ফলোঅনে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসেও স্বস্তি এনে দিতে পারেনি ওপেনাররা।

তবে প্রায় ঘণ্টাখানেক প্রতিরোধ গড়ে কিউইদের হতাশ করতে পেরেছে সাদমান ইসলাম ও নাঈম জুটি।

কিন্তু দলীয় স্কোর যখন ২৭ তখনই বিপদ ডেকে আনেন সাদমান। ১৪তম ওভারে কাইল জেমিসনের লেগ স্টাম্পের বাইরের বল ছেড়ে দিলেও দিতে পারতেন। কিন্তু অলস ভঙ্গিতে খেলতে গিয়ে টম ব্লান্ডেলের অসাধারণ এক ক্যাচে পরিণত হন তিনি।

প্রায় ঘণ্টা খানেক ক্রিজে পড়ে থাকলেও বামহাতি এই ব্যাটার সাজঘরে ফিরেছেন ৪৮ বলে ২১ রান করে। তার ২১ রানের ইনিংসে ছিল ৩টি চার। প্রথম ইনিংসেও ব্যর্থ হওয়া সাদমান করতে পেরেছিলেন মাত্র ৭ রান। কিন্তু নিল ওয়াগনারের শর্ট ডেলিভারিতে আর শেষ রক্ষা হয়নি শান্তর। ৩৬ বলে ২৯ রান করেন তিনি।

সবশেষ ৩ টেস্টের মধ্যে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ফলোঅনে পড়ে বাংলাদেশ। সর্বশেষ পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিল তারা।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved