শিরোনাম :
নিখোঁজের আগের ঘটনা জানালো শিমুর বোন ফাতেমা মনে রাখবেন, জনগণের টাকায় আমাদের সংসার চলে : রাষ্ট্রপতি অপ্রচলিত বাজারে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ২৪ শতাংশ নির্বাচন কমিশন আইন প্রণয়ন নিয়ে টিআইবির বিবৃতি সূচকের উত্থান-পতনে লেনদেন শেষ বাংলাদেশে করোনায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৮৪০৭ এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা ভাবছি না : শিক্ষামন্ত্রী বিএনপি অবৈধ অর্থ ব্যয়ে লবিস্ট ফার্ম নিয়োগ করেছে : তথ্যমন্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করলেন স্বামী একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখল অস্ট্রেলিয়া ওমিক্রন ঠেকাতে সক্ষম নয় টিকার ৪র্থ ডোজও : গবেষণা দলীয় লোক‌ দিয়ে নির্বাচন ক‌মিশন গঠন আইন কর‌ছে সরকার: নজরুল ১ এপ্রিল মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষা সুদানে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ৭ ৮ মার্চ খালেদা জিয়ার অভিযোগ গঠনের শুনানি

আয় ব্যয়ের হিসাব ইসিতে জমা দিলো বিএনপি

  • বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট, ২০২১

ঢাকা: ২০২০ সালে বিএনপির আয় হয়েছে এক কোটি ২২ লাখ ৫৪ হাজার ২৫৯ টাকা। ব্যয় দেখানো হয়েছে এক কোটি ৭৪ লাখ ৫২ হাজার ৫০০ টাকা। এর মধ্যে ঘাটতি এসেছে ৫১ লাখ ৯৯ হাজার ৩৬৪ টাকা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে দলের গত বছরের আয়-ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে জমা দিয়েছে বিএনপি। এদিন দুপুর একটায় নির্বাচন কমিশন সচিব এর কাছে আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও দলটির দপ্তরের চলতি দায়িত্বে থাকা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, দলীয় সদস্যদের চাঁদা, নমিনেশন ফরম বিক্রি, অনুদান, ব্যাংকের সুদ হিসাব থেকে দলের আয় আসে। অফিস স্টাফদের বেতন, বোনাস, ইউটিলিটি বিল, ত্রাণ সহায়তা, আহত নেতা-কর্মীদের সহযোগিতাসহ বিভিন্ন খাতে ব্যয় হয়। আর ব্যাংকের দলীয় একাউন্টের মূলধন থেকে ঘাটতি পূরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, আমরা ২০২০ সালের দলের আয়-ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে জমা দিয়েছি।

এ সময় নির্বাচন কমিশনকে বলেছি, দেশে কোনো রাজনৈতিক পরিবেশ নেই। নির্বাচনের পরিবেশ নেই। সব জায়গায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। বিএনপি একটি নিবন্ধিত বাংলাদেশের সর্ব বৃহৎ রাজনৈতিক দল হওয়া সত্বেও দলের সকল কর্মকাণ্ডে সরকার বাধা প্রদান করছে। দলটি লাখ লাখ নেতাকর্মী প্রতিদিন মামলা হামলার শিকার হচ্ছে। এসব বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে নজর দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, দেশে কোনো নির্বাচনের পরিবেশ নেই। আর আমরা আগেও বলেছি, এখনও বলছি এই নির্বাচন কমিশনের প্রতি আমাদের কোন বিশ্বাস নেই। দেশে যদি অবাধ এবং সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন জন্য দিতে হয় তাহলে নতুন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করুন।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved