শিরোনাম :
ভারতীয় বিমানের করাচিতে জরুরি অবতরণ বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনে সরকারের কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান নয়: ফখরুল অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার : প্রধানমন্ত্রী আফগানিস্তানে ত্রাণ পাঠিয়েছে সরকার বন্দুক সহিংসতার ‘মহামারি’ অবসানে লড়াই চলবে : বাইডেন শেখ হাসিনার উন্নয়নের হাতির ভেতরের যে দাঁত নেই, সেটি এখন স্পষ্ট : রিজভী প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৪৭, খাসি ১৮ টাকা নির্ধারণ বিএনপি কর্মীরা রাস্তার ভাষায় কথা বলে : কাদের সিলেটে বন্যায় কৃষিতে ক্ষতি ৯০০ কোটি টাকা ঈদযাত্রার প্রথম দিনেই ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘র‌্যাগ ডে’ উদযাপন বন্ধের নির্দেশ মিয়ানমারের গৃহযুদ্ধে কে জিতছে? বিশ্বজুড়ে করোনায় একদিনে মৃত্যুতে শীর্ষে ফ্রান্স, সংক্রমণে ইতালি কক্সবাজার সুমদ্রসৈকত থেকে ২ শিশুর মরদেহ উদ্ধার প্রেসক্লাবে নিজের গায়ে আগুন দেওয়া ব্যক্তি মারা গেছেন

আন্দোলনে সরকার হটিয়ে জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে: ফখরুল

  • শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ঢাকা : জনগণ একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চায় না। আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে হটিয়ে জনগণের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন-ডিইউজের বার্ষিক সাধারণ সভা- ২০২১ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।

এসময় মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রের মুখোশ পরিয়ে সব অধিকার হরণ করেছে সরকার। শুধু অস্ত্রের জোরে ক্ষমতা দখল করে রেখেছে আওয়ামী লীগ। স্বাধীনতার যে আশা আকাঙ্খা ছিলো তা ধ্বংস করে দিয়েছে তারা।

তিনি আরও বলেন, দেশজুড়ে ত্রাস তৈরি করতে সফল হয়েছে আওয়ামী লীগ। অত্যন্ত সুকৌশলে, সুপরিকল্পিতভাবে দীর্ঘদিন ধরে তারা এ কাজটি করে আসছে। ফেসবুকে বা সোশ্যাল মিডিয়াতে যারা মতামত দেয় তাদের নিয়ন্ত্রণে ব্যক্তি সুরক্ষা আইন করতে যাচ্ছে সরকার। এরমধ্যে বাকশালের আলামত পাওয়া যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

মহাসচিব জানান, এক-এগারোর যে পরিবর্তন এসেছিলো, সে পরিবর্তনের কথা ছিলো তখন যে রাজনীতিবিদরা ব্যর্থ হচ্ছেন, সুতরাং আমরা এটাকে ঠিক পথে নিয়ে যেতে চাই। মাইনাস টু ফর্মুলা নিয়ে এসেছিলো তারা। রাজনীতিবিদরা বাতিল, তারা যোগ্য প্রার্থীর খোঁজও করছিলো। দুর্ভাগ্য আমাদের, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার অনড় ভূমিকার কারণে সে অবস্থা থেকে মুক্তি পেলেও সে চক্রান্ত থেকে মুক্তি পাইনি। ২০০৮ সালের নির্বাচন থেকে পরবর্তী সব নির্বাচন সেই একই লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। এখন সবচেয়ে দুর্ভাগ্য দেশ এখন রাজনীতিবিদরা পরিচালনা করেন না। একজন রাজনীতিবিদ শেখ হাসিনাকে তারা শিকড় হিসেবে দাঁড় করিয়ে রেখেছে। তাকে দিয়ে যত অরাজনৈতিক, গণবিরোধী, গণতন্ত্রবিরোধী সকল কাজ করিয়ে নিচ্ছে।

ডিইউজে সভাপতি কাদের গনি চৌধুরীর সভাপতিত্বে এসময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, বিএফইউজের সভাপতি এম আব্দুল্লাহ, মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন, বিএফইউজের সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ, ডিইউজের সাবেক সভাপতি কবি আব্দুল হাই শিকদার, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন সবুজ, বর্তমান সাধারন সম্পাদক ইলিয়াস খান, ডিইউজের সাবেক সভাপতি বাকের হোসেন, বর্তমান সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved