শিরোনাম :
সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী সংবিধান ভোঁতা ছুরি দিয়ে জবাই করেছিল তারা: সংসদে মেনন শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন করবো: শিক্ষামন্ত্রী নন-ক্লোজার এগ্রিমেন্টে ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী অর্থপাচার: ৬৯ জনের তথ্য দিল বিএফআইইউ বাসের ধাক্কায় অটোরিকশার ৫ যাত্রী নিহত বিশ্বে পেঁয়াজ উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয় নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সুনির্দিষ্ট কোনো রূপরেখা নেই: কাদের বাংলাদেশে করোনায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু,নতুন শনাক্ত ১৫,৫২৭ ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন ক্লিনিক্যাল গাইডলাইন দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী র‌্যাবের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে সময় লাগবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওমিক্রনের ঝুঁকি এখনো অনেক বেশি : ডব্লিওএইচও বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার বিষয়টি অগ্রাধিকার দিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৬৬

আজ সুশিক্ষা বলতে কিছু নেই, কুশিক্ষায় ছেয়ে গেছে সারাদেশ : আলাল

  • শনিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২১

ঢাকা : আজ প্রধানমন্ত্রী যে ভাষায় কথা বলেন এর চেয়ে কুশিক্ষা পৃথিবীতে আর কিছু হতে পারে বলে আমার মনে হয় না যোগ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনি বলেছেন, আপনার মায়ের হাতে যারা ভাত খেয়েছে তারা আপনার পিতা হত্যার সাথে জড়িত। সেই অশিক্ষিত, মুনাফিক দলের নেত্রী আপনি। কুশিক্ষা আছে বলেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলেন না। আপনি জানেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভ্যাট বিরোধী প্রতিবাদে আমাদের সন্তানরা রাস্তায় নামলে আপনার সিংহাসন তলিয়ে যাবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে আবরার হত্যার পক্ষপাতিত্ব হলে শিক্ষার্থীরা রুখে দাঁড়াবে এই ভয়ে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলেন না এই ভয়ে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা মাদক ব্যবসাসহ কুকীর্তি করে তারা যাতে না করতে পারে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলেন না এই ভয়ে আপনার নিয়োগকৃত ভাইস চ্যান্সেলররা ও ছাত্রলীগের নেতারা টেন্ডার ভাগাভাগি করতে পারবে না বলে। আমরা বুঝি, আর এই জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করে রেখে জাতিকে অশিক্ষিত করে অন্ধকারের রাখছেন।

বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে কুশিক্ষা হয়তো কিছুটা দূর হবে। আপনারা (আওয়ামী লীগ) নিশ্চিত থাকেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে অভিভাবকরা খুশি হবেন। দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠী খুশি হবে। যত দে‌রিতে খুলবেন জনগণ বিক্ষুব্ধ হবে। আর এক সময় বেনজির, ডিসি হারুনও কোন কাজে আসবে না। এক সময় কোন বাহিনী কাজে আসবেনা। বাংলাদেশের মানুষই বড় বাহিনী।

শেখ হাসিনার উদ্দেশে বিএনপি’র যুগ্ন মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, এখনো সাবধান হোন, ভালো হন, ভালো হ‌তে পয়সা লাগে না।

তিনি বলেন, আপনার ভাষায় কফি‌নে যদি জিয়াউর রহমানের লাশ না থাকে। চন্দ্রিমা উদ্যানে যদি জিয়াউর রহমান না থাকে, আর সেই ভুয়া লাশের জন্য যদি ২০/২৫ লক্ষ মানুষ জড়ো হয়। তাহলে বুঝেন বেগম খালেদা জিয়া যদি ফিরোজার সামনে দাঁড়িয়ে একটা মাইকে চিৎকার দেয় কত লক্ষ মানুষ জড়ো হবে, চিন্তা করে দেখেন। সুতরাং এখনো সাবধান হোন, ভালো হন, ভালো হ‌তে পয়সা লাগে না।

শনিবার (২৮ আগস্ট) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক ফোরাম আয়োজিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাক্তার মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, বিএনপি’র যুগ্ন মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও নাজিমউদ্দিন আলম, যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতা গিয়াস উদ্দিন মামুন প্রমুখ।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved