শিরোনাম :
সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে : যুবদল সভাপতি ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ৮ জন দেশে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১০ পোশাক রপ্তানিতে আয় ১৪ শতাংশ বেড়েছে সেপ্টেম্বরে ভারত সফরে যাবেন প্রধানমন্ত্রী রিজার্ভ থেকে ডলার বিক্রির রেকর্ড সৌদি আরবে এক বছরে ১৪৭ জনের মৃত্যুদণ্ড আন্দোলন নস্যাৎ করতে পাল্টা কর্মসূচি দিচ্ছে আ’লীগ: ফখরুল সার-বীজের দাম বাড়ানো হবে না : কৃষিমন্ত্রী জামিনে মুক্তি পেলেন যুবদল সভাপতি টুকু আবারও দাম বাড়ল এলপিজির আবার খোলাবাজার থেকে এলএনজি কিনছে সরকার ডিএসই-সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে এবার বেসরকারিভাবে হজে খরচ বাড়ছে দেড় লাখ টাকা ময়মনসিংহে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে আরেক ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ২

আওয়ামী লীগ ছাড়া সবার সঙ্গে আলোচনার সুযোগ রয়েছে: ফখরুল

  • রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২

ঢাকা: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘অনির্বাচিত মানবাধিকার বিরোধী ও মানবাধিকার হরণকারী লুটেরা এই আওয়ামী লীগ সরকারকে সরিয়ে জনগণের সরকার ও জনগণের সংসদ প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে আন্দোলন করে তোলার প্রচেষ্টা চালাচ্ছি, এবং একটি বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করার যে প্রক্রিয়া শুরু করেছি সেই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে আজকের দ্বিতীয় দফায় অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে যে আলোচনা শুরু করেছি তার প্রথম বৈঠকটি আজকে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির সঙ্গে।’

রবিবার (২ অক্টোবর) খালেদা জিয়ার গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির সঙ্গে সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রথম দফায় সংলাপ করেও দ্বিতীয় দফায় সংলাপের প্রয়োজন হলো কেন এমন প্রশ্ন জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘প্রয়োজনটা এই জন্য হলো যে, প্রথম দফার সংলাপে আমরা নীতিগতভাবে একমত হয়েছিলাম যে একটা জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলব। আর এখন কোনো ইস্যুতে যুগপৎভাবে আমরা আন্দোলন গড়ে তুলব সেই বিষয়ে একমত হওয়ার জন্য দ্বিতীয় দফায় সংলাপে আলোচনা। এবং চূড়ান্ত আন্দোলনের রূপরেখা কবে কখন তা যথা সময়ে জানানো হবে।’

প্রথম দফায় ২২টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করা হয়েছিল এবং অনানুষ্ঠানিকভাবে আরও বেশ কয়েকটি দলের সঙ্গে আলোচনা করা হয়েছে সেই প্রত্যেকটি দলের সঙ্গেই কি আপনারা দ্বিতীয় দফায় আলোচনা করবেন?

আলোচনায় জাতীয় পার্টিও থাকছে কি এমন প্রশ্নের বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘যারাই আমাদের সঙ্গে যুক্ত হবেন তাদের সঙ্গেই আমরা আলোচনা করব। যখন আসবে তখন জানতে পারবেন, এই মুহূর্তে জাতীয় পার্টি সেই আলোচনায় আছে কি নেই তা বলা যাবে না।’

আলোচনার অবশ্যই প্রয়োজন আছে। শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ ছাড়া সকলের সঙ্গেই আলোচনা করার সুযোগ রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আজকের বৈঠক আলোচনা শেষে আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি যে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার লক্ষ্যে যে কয়েকটি প্রধান বিষয় নিয়ে আমরা আন্দোলন শুরু করব অর্থাৎ যে দাবিগুলো নিয়ে আমরা আন্দোলন শুরু করব।

সেই দাবিগুলোর বিষয়ে আমরা একমত হয়েছি। এর মধ্যে প্রধান কয়েকটি দাবি হচ্ছে, নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার, এই সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বিলুপ্ত, তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করে নতুন নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে আগামী নির্বাচন, একইসঙ্গে গণতন্ত্রের নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি সহ দলের অন্যান্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে যে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে তা প্রত্যাহার উল্লেখিত বিষয়গুলোতে আমরা একমত হয়েছি।

সংলাপে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বিএনপির প্রতিনিধি দলে স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান অংশ নেন।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved