শিরোনাম :
ন্যাটোতে যোগ দিতে চুক্তি স্বাক্ষর করল ফিনল্যান্ড-সুইডেন রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ৫ সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার সাথে প্রয়োজন দায়িত্বশীলতা : তথ্যমন্ত্রী মার্সেল টেলিভিশনে ৮ হাজার টাকা পর্যন্ত মূল্যছাড় ব্যবসায়ীর গায়ে আগুন: স্ত্রীসহ গ্রেফতার হেনোলাক্সের মালিক কোথায় কখন লোড শেডিং, সময় বেঁধে দেওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ঈদের দিন সারা দেশে বৃষ্টির আভাস ঈদের ছুটিতে ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ ওমিক্রনের দুই সাব ভ্যারিয়েন্টের কারণে দেশে করোনার নতুন ঢেউ বাংলাদেশে করোনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৯৯৮ কুসিক নির্বাচনে আত্মসমর্পণ করেছে ইসি: সুজন রাজধানীতে গ্যাস লিকেজ থেকে আগুন, মা-ছেলে দগ্ধ ভারতীয় বিমানের করাচিতে জরুরি অবতরণ বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসনে সরকারের কর্মকাণ্ড দৃশ্যমান নয়: ফখরুল অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার : প্রধানমন্ত্রী

অত্যাচার অনাচার করে ক্ষমতায় বেশিদিন টেকা যাবে না : মির্জা আব্বাস

  • শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১

ঢাকা : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, নিত্যপণ্যের দাম একবার বাড়বে একবার কমবে, এটাই নিয়ম। কিন্তু বাংলাদেশে যখন বাড়ে তখন আর কমে না। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ে। কারণ, সিন্ডিকেট করে তারা (আওয়ামী লীগ) টাকা নিয়ে বিদেশে পাচার করে।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়বাদী যুবদল আয়োজিত দ্রব্যমূল্যের উদ্ধর্গতির প্রতিবাদে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেছেন, এই অত্যাচার অনাচার করে ক্ষমতায় বেশিদিন টেকা যাবে না। সুতরাং আপনিও ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না। যত পেটান, যত মারেন, আমাদের কর্মীদের ক্ষমতা বাড়বে।

পুলিশের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা সরকারি বেতনভুক্ত কর্মচারী, আওয়ামী লীগের না। আপনাদের ঘরেও সন্তান আছে, যাদের গায়ে হাত তুলেন ভেবে দেখুন আপনার সন্তানের গায়ে কেউ হাত তুললে কেমন লাগবে। আমাদের টাকায় গুলি কিনছেন, আমাদের মারছেন। কিন্ত এক সময় আসবে এই সরকারের পতন ঘটবে। সময় আসবে তখন এই সরকারের একজনও মাঠে নামার সাহস পাবে না।

বিএনপির এই নেতা বলেন, তারেক রহমান নাকি লন্ডনে বসে এই সব মামলা হামলা পরিচালনা করছে। তিনি যদি লন্ডন থেকে এসব পরিচালনা করতে পারে তাহলে দেশে আসলে কি করবেন। সুতরাং কথা বলার সময় বুঝে শুনে কথা বলবেন। আমরাও কিন্তু মুখে কুলুপ এঁটে বসে থাকি না।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া বিদেশ যাওয়ার ভিসা পাচ্ছেন না। অথচ কয়েকদিন আগে আমাদের দেশের একজন বিশেষ লোক ট্রিটমেন্ট করে দেশে আসলেন। দেশের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী, তার ভিসা হয় না। কারণ তার অপরাধ, তিনি এদেশে গণতন্ত্র দিয়েছিলেন, এই দেশের গণ মানুষের স্বাধীনতা দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, এই বাংলাদেশে খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকার সময় তিন তিনবার পূজা আর রোজা এক সাথে হয়েছে। সে সময় খালেদা জিয়া সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রেখেছিলেন। তখন কোন সাম্প্রদায়িক হামলা হয়নি। এই সরকার উস্কানি দিয়ে সাম্প্রতিক দাঙা লাগিয়ে তারা প্রমান করতে চাচ্ছেন তিনি অসাম্প্রদিক। এটা প্রমাণ করে তারা ক্ষমতা থাকতে চাচ্ছে।

সংবাটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খরব
© Copyright © 2017 - 2021 Times of Bangla, All Rights Reserved